ভোমরা বন্দরে তিন অনিয়ম বন্ধে আল্টিমেটাম

সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের অভিযোগ করেছেন ব্যবসায়ীরা। এ বিষয়ে তারা জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন দিয়ে এর প্রতিকার দাবি করেছেন। আগামি ৩ সেপ্টেম্বরের মধ্যে তিন দফা দাবি না মানা হলে কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তারা।

ভোমরা স্থল বন্দর সিঅ্যান্ডএফ অ্যাসোসিয়শনের সভাপতি এইচএম আরাফত ও সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান নাসিম স্বাক্ষরিত আবেদনপত্রে বলা হয় ভৌগলিক অবস্থানের কারণে কলকাতার নিকট হওয়ায় ভোমরা স্থল বন্দরের গুরুত্ব অন্য বন্দরের চেয়ে বেশি।

এমনকি পশ্চিমবঙ্গ থেকে ঢাকার দূরত্ব অনেক কম হওয়ায় অন্য বন্দরের তুলনায় এখানে পণ্যর দাম কম থাকে। অথচ কোন সেবা না দিয়েই বাংলাদেশ স্থল বন্দর কর্তৃপক্ষের হয়ে ভোমরাস্থ উপ-পরিচালক অফিস সার্ভিস চার্জ গ্রহন করছে। এতে ব্যবসায়ীরা ক্ষতির শিকার হচ্ছেন।

বৃহস্পতিবার লিখিত অভিযোগে তারা বলেন আমদানিকারক তার দপ্তরে লেবার বিল পরিশোধ করে গাড়ির ছাড়পত্র পাবেন । এ জন্য প্রতি টন ৫৪.৬০ টাকা সার্ভিস চার্জ ও অন্যান্য খরচ মিল ৮৫.৬৩ টাকা পরিশোধ করে থাকেন। অথচ বন্দর কর্তৃপক্ষ সঠিকভাবে লেবার সরবরাহ না করায় বাড়তি দুই হাজার থেকে আড়াই হাজার টাকা ব্যয় কর তাদর লবার ব্যবহার করতে হচ্ছে।

বেনাপোল বন্দর ট্রান্সশিপমেন্ট বাবদ নাইট চার্জ না নেওয়া হলেও ভোমরা বন্দর তা নেওয়া হচ্ছে। এছাড়া প্রতিবছর সার্ভিস চার্জ বাবদ ৫ শতাংশ ট্যারিফ বৃদ্ধি পেলেও বেনাপোল তা বৃদ্ধি পায়না । একই দশ এটি দ্বৈতনীতি বলে উল্লেখ করেন তারা।

তবে এসব বিষয় ভোমরা স্থল বন্দর কর্তৃপক্ষের কোনো বক্তব্যে পাওয়া যায়নি। আগামি ৩ সেপ্টেম্বরের মধ্যে এই তিন দফা দাবি না মানা হলে তারা কঠোর কর্মসূচি দেবেন বলে জেলা প্রশাসকের কাছে দেওয়া আবেদনপত্র উল্লেখ করেছেন।

বার্তাবাজার/এম.কে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর