১৪, ডিসেম্বর, ২০১৮, শুক্রবার | | ৫ রবিউস সানি ১৪৪০

ইবি স্কুলের ছাত্রকে বলাৎকার, আটক ১

আপডেট: ডিসেম্বর ৮, ২০১৮

ইবি স্কুলের ছাত্রকে বলাৎকার, আটক ১

মোস্তাফিজ রাকিব, ইবি প্রতিনিধিঃ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) ল্যাবরেটরী স্কুল এন্ড কলেজে পড়ুয়া এক ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়,চতুর্থ শ্রেনীতে পড়ুয়া ঐ শিশুকে লম্পট রতন ডেকে নিয়ে মোটরসাইকেলে করে ইবি ক্যাম্পাসের পার্শবর্তী হরিনারায়নপুর গ্রামে অবস্থিত “রতন বালু ভান্ডার” এর পিছনে অবস্থিত প্রাইমারী স্কুলের ওয়াসরুমে নিয়ে যায় এবং ভয়ভীতি দেখিয়ে জোর করে বলৎকার করে।
বলাৎকার করেই ক্ষান্ত হয়নি,উপরন্তু সেই ভিডিও মোবাইলে ধারন অভিযুক্ত নরপশু।

নির্যাতনের শিকার ১০ বছর বয়সী ঐ শিশুর বাবা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় পরিবহণ অফিসের একজন কর্মচারী ছিলেন (মৃত) এবং তার মা বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টারের কর্মচারী বলে জানা গেছে।

এবিষয়ে নির্যাতিত শিশুর মা ইবি থানায় অভিযোগ করলে শনিবার বিকেলে ২ঘন্টার প্রচেষ্টায় অভিযুক্ত রতনকে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

আটককৃত যুবক রতন আলী (৩০) ইবি থানাধীন পূর্ব আব্দালপুর গ্রামের বাসিন্দা তার পিতার নাম গঞ্জের আলী জানা গেছে।

নির্যাতিত ঐ ছাত্র জানায়,রতন তাকে ডেকে নিয়ে অমানুষিক নির্যাতন করে এবং তা নিজ মোবাইলে ভিডিও করে পরবর্তীতে এসব ঘটনা যাতে কাউকে না বলে সেজন্য ঐ তাকে হুমকি ও ভয়-ভীতি দেখায়।

এ বিষয়ে ইবি থানার অফিসার ইনচার্জ রতন শেখ “বার্তাবাজার”কে বলেন,নির্যাতিতের মা অভিযোগ করার সাথে সাথে আমরা ব্যবস্থা নেই এবং গ্রেফতারের জন্য অভিযান চালিয়ে ২ঘন্টার মধ্যে অভিযুক্তকে আটক করে ভিডিও জব্দ করি।মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে বলে তিনি জানান

প্রসঙ্গত লম্পট রতনের বিরুদ্ধে তার নিজ গ্রামে অনেক অভিযোগ পাওয়া গেছে পূর্বেও সে এরকম অনেক ঘৃণ্য কাজ করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে।