সিরাজদিখানে শাহ মোয়াজ্জেম হোসেনের গাড়ী বহরে হামলা ও ভাংচুর, আহত-১২

ঢাকা

সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ মুন্সীগঞ্জ-১ আসনে বিএনপির মনোনিত প্রার্থী শাহ মোয়াজ্জেম হোসেনের গাড়ী বহরে হামলা ও ভাংচুর করেছে দূর্বৃত্তরা। এ সময় শাহ মোয়াজ্জেমের ১২ জন কর্মী ও সর্মথক আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানার আব্দুল্লাপুরের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে। গতকাল শনিবার বিকালে সিরাজদিখান উপজেলার কুচিয়া মোড়া কলেজ গেট এলাকায় এ হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটে।

প্রত্যাক্ষদর্শীরা জানান, বিএনপি প্রার্থী শাহ মোয়াজ্জেম শ্রীনগর থেকে কুচিয়া মোড়া কলেজ গেট হয়ে পাথর ঘাটায় একটি কর্মী সভায় যোগদান করতে যাচ্ছিলেন। হঠাৎ একদল দূর্বৃত্ত জয় বাংলা শ্লোগান দিয়ে হামলা চালিয়ে শাহ মোয়াজ্জেমের ব্যবহৃত গাড়ীসহ মোট ৫টি গাড়ী ভাংচুর করে।

বিএনপির প্রার্থী শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, কুচিয়া মোড়া কলেজ হয়ে পাথার ঘাটা যাওয়ার পথে জয় বাংলা শ্লোগান দিয়ে গাড়ীতে হামলা চালানো হয়। দূর্বৃত্তরা আমার ব্যবহৃত গাড়ীসহ ৫টি গাড়ী ভাংচুর করেছে। আমার ১২ জন কর্মী এবং সমর্থক আহত হয়েছে । তাদেরকে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়ার জন্য পাঠানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে সিরাজদিখান থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ ফরিদ উদ্দিন জানান, আমরা শুনেছি বিএনপির দূ’গ্রæপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে । এ ঘটনায় বিএনপির প্রার্থী শাহ মোয়াজ্জেম হোসেনের গাড়ীর ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে । ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, একইদিন দুপুরে মুন্সীগঞ্জ-১ আসনে শাহ মোয়াজ্জেম হোসেনের মনোনয়ন বাতিল করে ১২ ঘন্টার আলটিমেটাম দিয়ে শেখ মোঃ আব্দুল্লাহকে মনোনয়ন দেওয়ার জন্য তার সমর্থকরা সমাবেশ, বিক্ষোভ ও ঝাড়– মিছিল করেছে।