২১, নভেম্বর, ২০১৮, বুধবার | | ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

আপত্তিকর অবস্থায় পেয়ারা বাগানে ধরা খেল প্রেমিক যুগল

আপডেট: নভেম্বর ১০, ২০১৮

আপত্তিকর অবস্থায় পেয়ারা বাগানে ধরা খেল প্রেমিক যুগল

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে আপত্তিকর অবস্থায় বহিরাগত প্রেমিক-প্রেমিকাকে আটক করেছেন প্রক্টর অধ্যাপক মাহবুবর রহমান। আটকের পর তাদের বিশ্ববিদ্যালয় থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। শনিবার বিকেল ৪টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের পেয়ারা বাগান থেকে তাদের আটক করা হয়।

থানা ও প্রক্টর অফিস সূত্র জানায়, জঙ্গলাকীর্ণ ক্যাম্পাসের পেয়ারা বাগানে প্রেমিক-প্রেমিকা অনৈতিক কাজে লিপ্ত হয়। এ সময় তাদের সহযোগী খোকন পাহারা দেয়। পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের তিনজনকে হাতেনাতে আটক করেন প্রক্টর। আটককৃত দুই যুবক হলেন- উজ্জল হোসেন জোয়ার্দার এবং তার সহযোগী খোকন। উজ্জল শেখ পাড়া এলাকার গোলাম জোয়ার্দারের ছেলে। খোকনও একই এলাকার তোজাম উদ্দিনের ছেলে। আটককৃত উজ্জলের প্রেমিকার বাড়ি ঝিনাইদহের গাড়াগঞ্জ এলাকায়।

আটকের পর তাদের বিশ্ববিদ্যালয় থানায় সোপর্দ করেন প্রক্টর। আটককৃতরা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী নয়। তবে উজ্জলের বিরুদ্ধে ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র সংগঠনের ছত্রছায়ায় ক্যাম্পাসে মাদক সরবরাহের অভিযোগ রয়েছে।

এ বিষয়ে প্রক্টর অধ্যাপক মাহবুবর রহমান বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঘটনাস্থল থেকে তাদের হাতেনাতে আটক করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়কে অনেক প্রচেষ্টার পর বহিরাগত মুক্ত ঘোষণা করেছি। এ ক্যাম্পাসে বিনা প্রয়োজনে বহিরাগতদের প্রবেশে জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করে আসছি। ক্যাম্পাস শিক্ষার্থীদের আড্ডার স্থল। এখানে সুযোগ নিয়ে কাউকে পরিবেশ নষ্ট করতে দেব না।

বিশ্ববিদ্যালয় থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রতন শেখ বলেন, আটক প্রেমিক-প্রেমিকা ও তাদের সহযোগীকে থানায় রাখা হয়েছে। তাদের অভিভাবকদের খবর দিয়েছি। তারা এলে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।