পাকুন্দিয়ায় জেলা প্রশাসকের বিদায়ী মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে কিশোরগঞ্জের জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ শামীম আলমকে বিদায়ী মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) দুপুরে উপজেলা পরিষদ হলরুমে একাডেমি সুপারভাইজার শারফুল ইসলামের সঞ্চালনায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রোজলিন শহীদ চৌধুরী।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) তানিয়া আক্তার।
আরো বক্তব্য রাখেন পাকুন্দিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রেনু, ওসি মোঃ সারোয়ার জাহান, পৌর মেয়র মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম আকন্দ, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান হারুন অর রশীদ জুয়েল, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শামসুন্নাহার আপেল, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডারের সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মজিবুর রহমান, উপজেলা কৃষক লীগের সাবেক সভাপতি বাবুল আহমেদ প্রমুখ।

এ ছাড়াও বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, শিক্ষক প্রতিনিধি, গন্যমান্য বক্তিবর্গ, সাংবাদিক বৃন্দ, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা গন উপস্থিত ছিলেন।

মতবিনিময় সভার আগে বিদায়ী জেলা প্রশাসক মহোদয়কে ফুলেল শুভেচ্ছা ও সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়।

বিদায়ী জেলা প্রশাসক তার বক্তব্যে বলেন, আমি অত্যন্ত সৌভাগ্যবান যে, কিশোরগঞ্জের মত ভিআইপি জেলায় কাজ করার সুযোগ আমার হয়েছে। এ জেলায় তিনজন রাষ্ট্রপতির জন্ম। এ জেলায় অনেক মন্ত্রী সচিবের জন্ম হয়েছে। সাবেক আইজিপি এবং এই আসনের সাংসদ নূর মোহাম্মদ মহোদয়ের জন্ম এ জেলায়, সেনা প্রধান, বিচারপতি, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতির জন্ম এ জেলায়। আমি সরাসরি মহামান্য রাষ্ট্রপতি মহোদয়ের তত্ত্বাবধানে কাজ করার সুযোগ পেয়েছি। তিনি অত্যন্ত আন্তরিক ভাবে আমাকে সার্বিক সহযোগিতা করেছেন। আপনাদের সাথে এখানে কাজ করতে পেরে সত্যিই আমি ধন্য। সবশেষে তিনি বলেন, কিশোরগঞ্জ থেকে যারা বিদায় নেন, তারা কখনো কিশোরগঞ্জবাসীকে ভূলতে পারেনা। আমিও আপনাদের কখনো ভূলতে পারবোনা।

মোহাম্মদ শামীম আলম বিসিএস ২২ ব্যাচের কর্মকর্তা। তিনি টাঙ্গাইল জেলার ঘাটাইল উপজেলার গর্বিত সন্তান।

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর