কুমিল্লা- সিলেট মহাসড়কের দুই পাশে মরা গাছ, ঝুঁকি নিয়ে চলাচল

কুমিল্লা- সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কের দেবীদ্বার, মুরাদনগর ও বুড়িচং অংশে সড়কের দুই পাশে প্রাণহীন গাছগুলো কঙ্কালের মতো দাঁড়িয়ে রয়েছে। মরা গাছগুলোতে ঘুণ পোকারা বাসা বেঁধেছে। আর অতিমাত্রায় পচন ধরায় কিছু কিছু গাছের গোড়ার দিকের অংশ খসে পড়ছে। সামনে আসছে কালবৈশাখী। তাই গাছগুলো দ্রুত অপসারণ করা না হলে দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা রয়েছে।

কয়েকজন পথচারী জনায়, দুই বছর ধরে গাছগুলো এ অবস্থায় রয়েছে। অল্প ঝড়-বৃষ্টিতেই গাছের মরা ডালপালা ভেঙে পড়ছে। ফলে মাঝেমধ্যেই যাত্রীরা আহত হচ্ছে। তা ছাড়া মরা গাছ রাস্তার ওপর পড়ে থাকার কারণে অনেক সময় দীর্ঘ যানজটেরও সৃষ্টি হয়। এতে যাত্রীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

স্থানীয় আবদুল আলীম বলেন, ‘আমি কুমিল্লা- সিলেট আঞ্চলিক সড়ক দিয়ে নিয়মিত যাতায়াত করি। এ সড়কের দুই পাশে কয়েক শ বিভিন্ন প্রজাতির গাছ মৃত অবস্থায় ঝুঁকিপূর্ণভাবে দাঁড়িয়ে আছে। গাছের ডালপালা যেকোনো সময় পথচারীদের ওপর ভেঙে পড়ে মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। তাই গাছগুলো দ্রুত অপসারণ করা জরুরি হয়ে পড়েছে।’

তিনি আরো জানান, কুমিল্লা- সিলেট মহাসড়কের দেবীদ্বারের বারেরা, ভিরাল্লা, চরবাকর, বেগমাবাদ, জাফরগঞ্জ, চাপানগর, সাইলচর এলাকার সড়ক মুরাদনগর উপজেলার কোম্পানীগঞ্জ, বুড়িচংয়ের ময়নামতি ক্যান্টনমেন্ট ও কংশনগর বাজারের দুই পাশে রয়েছে শত শত বনজগাছ। এসব গাছের নিচেই ফেলা হচ্ছে ময়লা-আবর্জনা। ফলে পরিবেশ দূষণসহ প্রায় শতাধিক গাছ মরে গেছে।

স্থানীয় মো. আলম নামে আরেক বাসিন্দা জানান, পৌর শহরের কয়েকশ বাসাবাড়ি, সরকারি-বেসরকারি হাসপাতাল, শতাধিক হোটেল-রেস্টুরেন্টের বর্জ্য মহাসড়কের পাশে ফেলেন পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা। স্তূপে পরিণত হলে এসব ময়লা আগুন জ্বালিয়ে ধ্বংস করা হয়। আগুনের কারণে সড়কের পাশের গাছগুলো মরে যাচ্ছে। এছাড়া ভিরাল্লা, চরবাকর, বেগমবাদসহ কয়েকটি এলাকায় অপরিকল্পিতভাবে গড়ে ওঠা ইটভাটার কারণে অর্ধশত গাছ মরে গেছে।

রোববার দুপুরে এ বিষয়ে কুমিল্লা বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী জানান, ‘সড়কের দুই পাশে অনেক গাছ মরে গেছে। বিষয়টি আমাদের নজরে এসেছে। দ্রুত এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

শরিফুল/বার্তাবাজার/জে আই

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর