মালয়েশিয়ায় অপহরণ করে খুন; গ্রেফতার ৪ বাংলাদেশি

মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে মোঃ সোহেল মিয়া (৩৯) নামে এক বাংলাদেশি কারখানার শ্রমিককে অপহরণের পর তার পঁচা গলা মরদেহ উদ্ধার করেছে দেশটির পুলিশ। আজ শুক্রবার (৭ অক্টোবর) দেশটির একাধিক সংবাদ মাধ্যম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এই অপহরণ ও হত্যার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ৪ প্রবাসী বাংলাদেশি কে গ্রেফতার করেছে মালয়েশিয়ার পুলিশ। আটককৃতদের স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে তামিন জায়া ইন্ড্রাষ্ট্রিয়াল পার্কের একটি জঙ্গল থেকে সোহেলের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে কাজাং থানা পুলিশ।

নিহত সোহেল মিয়া টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার দক্ষিণ ধলাপাড়া গ্রামের মরহুম আহমেদ মিয়ার ছেলে। সে ১৫ বছর ধরে মালয়েশিয়ায় একটি কারখানায় কাজ করতেন।

এর আগে গত ২৫ সেপ্টেম্বর সোহেল কে তার বাসা থেকে অপহরণ করে তার পরিবারের কাছে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে দূর্বৃত্তরা। এরপর এই ঘটনায় গত ৪ অক্টোবর বরগুনা থেকে মুক্তিপণের টাকাসহ নাসির উদ্দিন (৩৮) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। টাঙ্গাইলের ঘাটাইল থানায় সোহেলের বোনজামাই বিল্লাল হোসেনের দায়ের করা অপহরণ মামলার সূত্রে নাসিরকে গ্রেপ্তার করা হয়। বুধবার ঘাটাইল থানা পুলিশের ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন নামঞ্জুর করে নাসিরকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত।

এই অপরাধে ৪ বাংলাদেশি কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। একজনের নাম মামুন শিকদার ও অপরজন মোঃ আলমগীর এর নাম প্রকাশ করলেও বাকি দুজনের নাম ও ঠিকানা প্রকাশ করেনি পুলিশ। পুলিশ জানিয়েছে তাদের ৪ জন কে রিমান্ডে নিয়ে হত্যার রহস্য উদঘাটনে কাজ করছে তারা।

মালয়েশিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মো. গোলাম সারোয়ার বলেন, সোহেল মিয়া অপহরণ ও হত্যার ঘটনায় জড়িত চক্রের সবাইকে কঠোর শাস্তির আওতায় আনার ব্যবস্থা করা হবে। প্রবাসে যারা দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করার চেষ্টা করবে, তাদের ছাড় দেওয়া হবে না।

আশরাফুল/বার্তাবাজার/এম আই

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর