ফরিদপুরে মোটরসাইকেল থামিয়ে যুবককে কুপিয়ে হত্যা

ফরিদপুর শহরতলীর বায়তুল আমান এলাকায় এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। শহরতলীর বায়তুল আমান আদর্শ একাডেমির সামনে সোমবার (৪ জুলাই) রাত সাড়ে ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে।

নিহত যুবকের নাম সবুজ মোল্লা। তিনি শহরের বায়তুল আমান এলাকার শহীদ মোল্লার পুত্র। এলাকার লোকজনের ভাস্য মতে তাদের কাছে সবুজ একজন ছাত্রলীগের কর্মী হিসেবে পরিচিত ছিলেন।

এ ব্যাপারে ফরিদপুর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তামজিদুল রশিদ চৌধুরী রিয়ান বার্তা বাজারকে জানান, নিহত সবুজ মোল্লা ছাত্রলীগের কোনো কর্মী ছিলেন না। জেলা ছাত্রলীগের কর্মকাণ্ডের সঙ্গে তার কোনো সম্পর্ক নেই। কখনো কোন প্রোগ্রামে ও সবুজকে দেখেনি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বায়তুল আমান এলাকায় ছোট একটি দোকান ছিলো সবুজ মোল্লার। তিনি দোকানে বিকাশ, নগদ ও ফ্লেক্সিলোডের ব্যবসা করতেন। সোমবার দিবাগত রাতে ফারুক ও প্রত্যয় নামে তার দুই সহযোগীকে নিয়ে একই এলাকার সম্রাটের বাসা থেকে মোটরসাইকেলে চালিয়ে ফিরছিলেন তিনি। কিন্তু পথের মাঝামাঝি আদর্শ একাডেমির সামনে এলে ছয় থেকে সাতজনের একটি দল সবুজকে মোটরসাইকেল থেকে নামিয়ে তার উপর আক্রমণ চালায়। এতে তার মাথা ও শরীরের বিভিন্ন জায়গায় মারাত্মকভাবে জখম হয়।

এ সময় সবুজের বাম হাতটি কনুইয়ের নিচ থেকে ভেঙ্গে আলাদা হয়ে যায়। এর পরবর্তীতে স্থানীয়রা সবুজকে উদ্ধার করে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে নেওয়ার কিছুক্ষণ পরে রাত সোয়া ১২টার দিকে তিনি মারা যান।

এ বিষয়ে ফরিদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) সুমন রঞ্জন সরকার জানান, খুনের বিষয়টি পুলিশ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এই ঘটনার পেছনে কি কারণ রয়েছে তা উদঘাটনের চেষ্টা চালানো হচ্ছে। এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য পরবর্তীতে জানানো যাবে। আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

শিশির/বার্তাবাজার/এম আই

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর