মোংলা সমুদ্র উপকুলে অভিযান শুরু করেছে কোস্টগার্ড

অন্যান্য বছরের মতো এবারও বঙ্গোপসাগরে বাংলাদেশের সীমানায় গত (২০ মে) থেকে অভিযান শুরু করেছে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে আগামী ২৩ জুলাই পর্যন্ত।

কোস্টগার্ডের পশ্চিম জোনের অধিনস্ত সকল স্টেশন ও আউটপোস্ট থেকে নিষিদ্ধ সময়ে মৎস্য সম্পদ সুরক্ষা ও আহরণ বন্ধে নিয়মিত অভিযান অব্যাহত থাকবে।

এছাড়াও প্রজনন ক্ষেত্র সংরক্ষণ কার্যক্রম সফল করার লক্ষে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড মৎস্য জীবীদের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধিমূলক কার্যক্রম হাতে নিয়েছে। প্রজনন মৌসুমে বঙ্গোপসাগরে সকল প্রকার মৎস্য আহরণ বন্ধে নিয়মিত প্রতিরোধ মূলক অভিযানও পরিচালনা করবে কোস্টগার্ড।

কোস্টগার্ড কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কাজী আকিব আরাফাত বলেন, বর্তমান সরকার অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি লক্ষ্যে ব্লু ইকোনমিক গুরুত্ব দিয়ে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় বঙ্গোপসাগরে বাংলাদেশের সামুদ্রিক অর্থনৈতিক অঞ্চলে প্রজনন মৌসুমে ডিমওয়ালা মাছ ও চিংড়ির নিরাপদ পরিবেশ সৃষ্টি করা, সমুদ্রে মাছের মজুদ বৃদ্ধিসহ মৎস্য সংরক্ষণ, সুষ্ঠু ও বিজ্ঞান সম্মত উপায়ে মৎস্য আহরণ নিশ্চিত করার স্বার্থে গত ২০ মে থেকে আগামী ২৩ জুলাই পর্যন্ত ৬৫ দিন বঙ্গোপসাগরে সকল প্রকার মৎস্য আহরণ নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, এক সপ্তাহ আগে সব ধরনের নৌযানের মাধ্যমে মাছ ধরা নিষিদ্ধ ঘোষণা করে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। নিষেধাজ্ঞা নিয়ে ইতোমধ্যে সরকারিভাবে প্রচার প্রচারণা ও সভা করে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে মৎস্য বিভাগসহ স্থানীয় প্রশাসন। নিষেধাজ্ঞা চলাকালীন সময়ে মৎস্য সম্পদ সংরক্ষণ অভিযানের অংশ হিসেবে সমুদ্র এলাকায় অভিযান অব্যাহত রেখেছে নৌবাহিনী, কোস্টগার্ড, নৌ-পুলিশ ও স্থানীয় প্রশাসন।

কামরুজ্জামান/বার্তাবাজার/এম আই

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর