আওয়ামী কার্যালয়ে ছাত্রলীগ নেতাকে পেটানোর পর পানিতে চুবিয়ে হত্যা

নয়ন শেখ কাওরাইদ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি প্রার্থী ছিলেন। নিহত নয়ন শেখ (২৮) কাওরাইদ ইউনিয়নের বেলদিয়া গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আব্দুলের ছেলে।

বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে কাওরাইদ বাজারে কাওরাইদ ইউনিয়ন আওয়ামী কার্যালয়ের কাছের এক পুকুর থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তাকে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে পেটানোর পর পুকুরে ডুবিয়ে হত্যা করা হয় বলে স্থানীয়রা পুলিশকে জানিয়েছে।

শ্রীপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ইমতিয়াজ মাহফুজ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “নিহতের মাথায় কোপের চিহ্ন এবং শরীরে একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।”

ময়নাতদন্তের জন্য লাশ গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

তার বড় ভাই রতন মিয়া সাংবাদিকদের বলেন, বিকালে কাওরাইদ বাজারে কাওরাইদ কেএন উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে এক যুবলীগ নেতার ছেলের সঙ্গে অন্য ছেলেদের বাগবিতণ্ডা হয়েছিল। অন্য ছেলেরা নয়নকে বিচার দিলে তিনি যুবলীগ নেতার ছেলেকে ‘শাসন’ করেছিলেন। এরপর ওই যুবলীগ নেতা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে ডেকে নেন নয়নকে।

আমরা নয়নকে না পেয়ে খুঁজতে থাকেন রতন। পরে পাশের পুকুরে লাশ দেখতে পান।

পুলিশ কর্মকর্তা ইমতিয়াজ বলেন, এই হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

বার্তবাজার/আর এম সাফিন

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর