ফণীর প্রভাবে খুলনায় ৪ হাজার ৬৪০টি ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত

প্রবল ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাবে খুলনায় ৪ হাজার ৬৪০টি ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এছাড়া বেড়িবাঁধের ভাঙ্গা অংশ দিয়ে কয়রা ও দাকোপ উপজেলার ২টি স্থান থেকে লোকালয়ে পানি ঢুকেছে।

খুলনা জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাবে খুলনায় ৯৯০টি ঘরবাড়ি সম্পূর্ণ এবং ৩ হাজার ৬৫০টি ঘরবাড়ি আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

এর আগে শনিবার ভোরে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ হয়ে খুলনার ওপর দিয়ে অতিক্রম করে ফণী। এরপর শনিবার দুপুরের পর থেকে খুলনার ৩২৫টি আশ্রয়কেন্দ্র ও প্রায় ৫শ’ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আশ্রয় নেওয়া প্রায় ২ লাখ ৫২ হাজার মানুষ নিজ নিজ ঘরবাড়িতে ফিরতে শুরু করেছেন।

খুলনা আবহাওয়া অফিসের ইনচার্জ আমিরুল আজাদ জানান, শনিবার সকাল ৯টায় ঘূর্ণিঝড়টি খুলনা অতিক্রম করে। এর প্রভাবে প্রায় ৬০ থেকে ৮০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যায়।

খুলনার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন জানান, ঝড়ে খুলনার ২টি গ্রাম প্লাবিত এবং এক কিলোমিটার বেড়িবাঁধ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। টিনের চাল ভেঙ্গে পড়ে একজন আহত হন। তবে কোথাও প্রাণহানি ঘটেনি।

খুলনা অঞ্চলের বন সংরক্ষক আমির হোসাইন চৌধুরী জানান, ঝড়ে সুন্দরবনের গাছপালা, বন্যপ্রাণী কিংবা বন বিভাগের অবকাঠামো ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর