২০, এপ্রিল, ২০১৮, শুক্রবার | | ৪ শা'বান ১৪৩৯

শিরোনাম সাকিবদের প্রথম হার, শীর্ষে কলকাতা; দেখুন আইপিএল পয়েন্ট টেবিল এইমাত্র কেন্দ্রীয় চুক্তিতে জায়গা পাওয়া ১৩ ক্রিকেটারের মধ্যে ১০ জনের প্রীতির হৃদয় জুড়িয়ে দিলেন ক্রিস গেইল ,দিলেন বিশেষ পুরস্কার ! যমুনার বুকে স্বাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে আছে মিটুয়ানী ব্রিজ - দ্রুত রায়গঞ্জে ব্রীজ আছে রাস্তা নাই জনদূর্ভোগ চরমে! দক্ষিণ আফ্রিকায় কোম্পানীগঞ্জের যুবক কে গুলি করে হত্যা 'আমি ঢাবির দুই হাজার মেয়ের ছাত্রত্ব বাতিল করে দেব’ কাঠমান্ডুর সেই বিমানবন্দর বন্ধ ২ হাজার মেয়ের ছাত্রত্ব বাতিল করে দেয়ার হুমকি সুফিয়া কামাল ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের পর খালেদা জিয়ার জীবন নিয়ে শঙ্কিত বিএনপি

মুম্বাইয়ের না জেতার প্রকৃত কারণ ফাঁস

আপডেট: ১৬ এপ্রিল ২০১৮, ০৮:৪৪ পিএম

মুম্বাইয়ের না জেতার প্রকৃত কারণ ফাঁস
চলতি আইপিএলে এখন পর্যন্ত বেশ ভালোই বোলিং করছেন মোস্তাফিজুর রহমান।  বিশেষ করে ডেথ ওভারগুলোতে কাটারে নাকাল করে ছাড়ছেন প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানকে।  তবে মোস্তাফিজ ভালো বোলিং করলেও তার দল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের অবস্থা ভালো নয়।  এখন পর্যন্ত তিন ম্যাচ খেলে তিনটিতেই হেরেছে আইপিএলের বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।  তিনটিতেই সামান্য ব্যবধানে হার।  ভারতের সাবেক পেস তারকা জহির খান মানতে পারছেন না বিষয়টি। 

ভারতীয় তারকা মনে করছেন মোস্তাফিজ এবং বুমরাহকে সঠিক
ভাবে ব্যবহার করতে পারছেন না মুম্বাই অধিনায়ক রোহিত শর্মা।  সে কারণেই বারবার অল্প ব্যবধানে হারতে হচ্ছে তাদের।  রোহিত সধারণত মোস্তাফিজ ও বুমরাহকে প্রথম দিকে দু-একটি ওভার বোলিং করিয়ে তাদের বাকি ওভারগুলো রেখে দিচ্ছেন শেষ দিকের জন্য। 


এই পদ্ধতি পছন্দ হচ্ছে না জহিরের।  সাবেক পেসারের মতে, মোস্তাফিজ-বুমরাহ মুম্বাইয়ের সেরা দুই বোলার।  তাদের ওভারগুলো শেষ দিকের জন্য না রেখে আগেই ব্যবহার করলে প্রতিপক্ষ চাপে পরে যাবে।  আইপিএলে ধারাভাষ্যকারের ভুমিকা পালন করা জহির বলেন, ‘রোহিত তার সেরা দুই বোলার মোস্তাফিজ ও বুমরাহকে ইনিংসের শুরুর দিকে ব্যবহার করছে না।  ডেথ ওভারের জন্য রেখে দিচ্ছে।  কিন্তু শুরুর দিকে তাদেরকে ব্যবহার করলে উইকেট পেত।  ম্যাচের ফলও অন্য রকম হতে পারত তখন। ’


সর্বশেষ দিল্লির বিপক্ষে শেষ বলে গিয়ে হেরেছে মুম্বাই।  সেই ম্যাচের উদাহরণ টেনে জহির বলেন, ‘জয়ের জন্য দিল্লির প্রয়োজন ছিল (শেষ ওভারে) ১১ রান।  কিন্তু মোস্তাফিজ-বুমরাহ আগে বোলিং করলে হয়তো শেষ ওভারে ১৭-১৮ রান থাকত।  তখন ম্যাচ জয়ের বড় সম্ভাবনা তৈরি হতো।  শুরুর দিকে উইকেট পড়ে গেলে শেষ দিকের ব্যাটসম্যানরা স্বাভাবিকভাবেই চাপে থাকে। ’


মোস্তাফিজুর রহমানের প্রসংশায় জহির বলেন, ‘প্রতি ম্যাচেই দারুণ শুরু করছেন মোস্তাফিজ।  তার বোলিং দেখে বোঝাই যাচ্ছে শুরু দিকে তছনছ করে দেওয়ার মতো বোলার সে। ’