২১, এপ্রিল, ২০১৮, শনিবার | | ৫ শা'বান ১৪৩৯

ভয়াবহ আকারে ছড়িয়ে পড়ছে পরকীয়া

আপডেট: ১৮ মার্চ ২০১৮, ০৯:২৭ এএম

ভয়াবহ আকারে ছড়িয়ে পড়ছে পরকীয়া
বিয়ের পর স্বপ্নের মতোই যাচ্ছিল স্বপ্নার দিনগুলো।  স্বামী-সংসার নিয়ে সুখী পরিবার তার।  পরিবারের অমতে নিজের পছন্দ করা ছেলেকে বিয়ে করে এতটুকু ভুল করেননি এমনটি ভাবতেন স্বপ্না।  একটি বেসরকারি মেডিকেলে ৩য় বর্ষে পড়ার সময় স্বপ্না ভালোবেসে বিয়ে করেন রিপনকে।  একটি বেসরকারি এয়ারলাইন্সে চাকরি করেন রিপন।  মা-বাবার ইচ্ছে ছিল স্বপ্নাকে ডাক্তারের সঙ্গে বিয়ে দেয়ার। 

এ কারণে স্বপ্নার এ বিয়েতে মত ছিল না তাদের।  বিয়ের পর ভালো আছে দেখে স্বপ্নার পরিবার মেনে
নিয়েছিল রিপনকে।  বিয়ের দেড় বছর পর স্বপ্নার কোল জুড়ে আসে ফুটফুটে কন্যা সন্তান।  সন্তান জন্ম নেবার কিছুদিন পর থেকেই বদলে যেতে থাকে রিপন।  রাত করে বাড়ি ফেরেন।  বাসায় যতক্ষণ সময় থাকেন ফোনে কথা বলা নিয়েই ব্যস্ত থাকেন।  কার সঙ্গে কথা বলো স্বপ্না জানতে চাইলে রিপন বলতেন অফিসের ফোন।  এভাবে বেশ কিছুদিন চলতে থাকে।  একদিন স্বপ্না রিপনের মোবাইল চেক করলে কল লিস্টে একটি মেয়ের নম্বর দেখতে পান। 


এই মেয়ের নম্বরে একাধিক বার ডায়াল করেছেন রিপন।  সেদিনেই মনে সন্দেহের দানা বাঁধে স্বপ্নার।  পরে স্বপ্না রিপনের অফিসে খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন এক বিমানবালার সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে গেছেন রিপন।  স্বপ্না কিছুতেই মানতে পারছিলেন না বিষয়টি।  এক মুহূর্তে স্বপ্নার জীবন এলোমেলো করে দিয়েছে রিপনের পরকীয়ার সম্পর্ক।  এ শুধু একজন স্বপ্নার গল্প নয়।  প্রতিদিন এরকম অনেক নারীর স্বপ্ন ভাঙছে পরকীয়ার কারণে।  সমাজে পরকীয়া সামাজিক ব্যাধিতে পরিণত হয়েছে।