২১, এপ্রিল, ২০১৮, শনিবার | | ৫ শা'বান ১৪৩৯

ভারতকে হারানোর কৌশল জানালেন মাশরাফি

আপডেট: ১৭ মার্চ ২০১৮, ১০:০৯ পিএম

ভারতকে হারানোর কৌশল জানালেন মাশরাফি
নিধাস ট্রফির ফাইনাল ম্যাচে রোববার (১৮ মার্চ) ভারতের বিপক্ষে নামবে বাংলাদেশ।   এদিকে দুবারের দেখায় দুইবারই হেরেছে বাংলাদেশ।  এবার ফাইনালে তৃতীয়বারের মত ভারতের মুখোমুখি হবে টাইগার শিবির।   শিরোপার মঞ্চে তাই কঠিন পরীক্ষাই অপেক্ষা করছে।  ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা মনে করেন, ভারতীয় দুই ওপেনারকে দ্রুত ফেরাতে পারলে বাংলাদেশের হাতেই থাকবে ম্যাচ।   পাশাপাশি দুই বোলার যুভেন্দ্র চাহাল ও ওয়াশিংটন সুন্দরকে ঠিকভাবে হ্যান্ডেল করাও ম্যাটার
করবে।   

মাশরাফি বলেন, ‘ওখানে যারা কোচ আছেন, সিনিয়র প্লেয়ার আছে সবাই একটা প্ল্যান নিশ্চয়ই করবে।  আমার কাছে মনে হয় রোহিত শর্মা এবং শিখর ধাওয়ান- এই দুইটা উইকেট যদি আমরা শুরুতে নিতে পারি তাহলে ম্যাচটা আমাদের হাতে থাকবে।  একই সঙ্গে যুভেন্দ্র চাহাল ও ওয়াশিংটন সুন্দরকে ভালোভাবে সামলাতে হবে।  এই চারজন প্লেয়ার নিয়ে পরিকল্পনা করলে আমাদের দিকে ম্যাচটা আসতে পারে। ’

প্রথম ম্যাচে ভারতের সঙ্গে বলতে গেলে পাত্তাই পায়নি বাংলাদেশ।  পরের ম্যাচে অনেকটা সময় ম্যাচে ছিল, কিন্তু মুশফিকুর রহিমও শেষ পর্যন্ত জিতিয়ে আসতে পারেননি।  এখন পর্যন্ত টি-টোয়েন্টিতে সাত ম্যাচে একবারও পারেনি ভারতকে হারাতে।  সেজন্য মাশরাফি চোখ রাখতে বলেছেন চার জনের ওপর।  

শনিবার (১৭ মার্চ) মিরপুরের একাডেমি মাঠে অনুশীলন সেরে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন ওয়ানডে দলপতি।   শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শুক্রবারের ম্যাচে ‘নো বল’ বিতর্ক নিয়েও প্রশ্ন করা হয় তার কাছে।   তখন তিনি বলেন, ‘প্রতিবাদে আরেকটু সংযত হওয়া উচিত ছিল। ’

‘যেটা হয়েছে মাঠে হিট অব দ্য মোমেন্ট বলতে পারেন।  নো বলটা আমাদের পক্ষে আসা উচিত ছিল।  টি-টুয়েন্টিতে ওভারে দুইটা বাউন্সার মারবেন, এটা তো ক্রিকেটিং নিয়মে নাই।  হয়ত আরেকটু সংযত হলে ভাল হত।  কিন্তু যেটা বললাম হিট অব দ্য মোমেন্টে হয়ে গেছে। ’



লঙ্কানদের বিপক্ষে দুই জয় নিয়েও কথা বলেন ম্যাশ।  নিদাহাস ট্রফির দুই জয় বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টির সংক্ষিপ্ত ইতিহাসের সেরা দুই জয়।  এজন্য পুরো দলকে কৃতিত্ব দিয়েছেন মাশরাফি।  পাশাপাশি তামিমের ব্যাটিংকে মার্ক করেছেন আলাদা করে, ‘বাংলাদেশের সেরা দুই টি-টোয়েন্টি যদি হিসাব করা হয়, তাহলে এই নিদহাস ট্রফিতেই দুইটা হবে।  মুশফিক যেভাবে আগেরটা জেতাল।  কালকে রিয়াদ করল।  কোনো অংশে তামিমের অবদান কম না, লিটনেরও অবদান ছিল।  কাল তামিম আউট না হলে আরো আগে জিততে পারতাম।  দুই ম্যাচেই তামিমের বিশাল অবদান আছে। ’