১৬, জুলাই, ২০১৮, সোমবার | | ৩ জ্বিলকদ ১৪৩৯

সুইজারল্যান্ডের প্রতিষ্ঠান ব্লকচেইনভিত্তিক স্মার্টফোন তৈরি করছে

সুইজারল্যান্ডের কনজ্যুমার ইলেকট্রনিকস পণ্য নির্মাতা সিরিন ল্যাবস ‘ফিনি’ নামে ডুয়াল স্ক্রিন নকশার স্মার্টফোন বাজারে নিয়ে আসছে। ফোনটির বিশেষত্ব হচ্ছে ব্লকচেইন প্রযুক্তি। ফোনটি তৈরি করবে স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ফক্সকন। বিশ্বজুড়ে এখন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে ব্লকচেইন প্রযুক্তি। ব্লকচেইনকে আধুনিক কালের এক অভিনব উদ্ভাবন বলা হচ্ছে। ব্লকচেইন হচ্ছে তথ্য সংরক্ষণ করার একটি নিরাপদ এবং উন্মুক্ত পদ্ধতি। এ পদ্ধতিতে তথ্য বিভিন্ন ব্লকে একটির পর একটি চেইন আকারে সংরক্ষণ করা হয়। ‘সাতোশি নাকামতো’ ছদ্মনামের এক বা একাধিক ব্যক্তি বা গোষ্ঠী এ প্রযুক্তির উদ্ভাবক। ২০০৯ সালে প্রথমবারের মতো বিটকয়েন সফটওয়্যার প্রকাশিত হওয়ার পর থেকে ব্লকচেইন প্রযুক্তির অনেক বিবর্তন ঘটে চলেছে। আইএএনএসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফিনি হবে বিশ্বের প্রথম ব্লকচেইনভিত্তিক স্মার্টফোন। নভেম্বর মাসে এটি বাজারে আসতে পারে। এর দাম হবে ৯৯৯ মার্কিন ডলার। শুক্রবার প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট জেডডিনেটের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, অ্যান্ড্রয়েড ৮.১-এর ওপর ভিত্তি করে তৈরি সিরিন ওস-ভিত্তিক ফোনটিতে দুই ইঞ্চি স্লাইডার ‘সেফ স্ক্রিন’ থাকবে। এতে ইন্ট্রুসন প্রোটেকশন সিস্টেম (আইপিএস) থাকবে। এর বাইরে নিরাপদ যোগাযোগ, একাধিক কাজের সক্ষমতা, ক্রিপটোওয়ালেট এবং গুগল প্লে স্টোরের পাশাপাশি ডিসেন্ট্রালাইজ অ্যাপ্লিকেশন (ডিঅ্যাপ) সুবিধা থাকবে। সিরিন ল্যাবসের প্রধান বিপণন কর্মকর্তা নির্মোড মে বলেন, সিরিন ল্যাবসের লক্ষ্য হচ্ছে ব্লকচেইন অর্থনীতি ও বিশাল বাজারের মধ্যে পার্থক্য দূর করা। কয়েক বছর আগে ১৪ হাজার ৮০০ মার্কিন ডলার দামে ‘সোলারেন’ নামে চড়া দামের একটি স্মার্টফোন বাজারে ছেড়েছিল সিরিন ল্যাবস। স্মার্টফোনটির ওয়ালেট হার্ডওয়্যার বা অপারেটিং সিস্টেমের দায়িত্বে থাকছে কুইন্সল্যান্ডের প্রতিষ্ঠানটি। ফোনের নকশা ও উৎপাদনের কাজটি করবে চীনের ফক্সকন।