আজ শুক্রবার রাত ২:১৮, ২৪শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং, ১০ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা রবিউল-আউয়াল, ১৪৩৯ হিজরী

ব্যাটসম্যান সৌম্য সরাসরি বোল্ড হয়েও রিভিউয়ের জন্য আবেদন করেন!

নিউজ ডেস্ক | বার্তা বাজার .কম
আপডেট : মার্চ ১২, ২০১৭ , ১:১০ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : খেলাধুলা
পোস্টটি শেয়ার করুন

বুদ্ধি লোপ পেলো সৌম্যর? সরাসরি বোল্ড হয়েও রিভিউয়ের জন্য আবেদন করেন বাংলাদেশি ওপেনার ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার। প্রথম ইনিংসে কিপারের হাতে বল রেখে রানের জন্য দৌড় দিলেন তামিম ইকবাল।

দ্বিতীয় ইনিংসে বোল্ড হয়েও রিভিউয়ের আবেদন করে বসলেন সৌম্য সরকার।  এমন নির্বুদ্ধিতা নিয়ে হাসাহাসি করছে প্রতিপক্ষ দেশের সংবাদ মাধ্যমগুলো। তামিম- সৌম্যদের কি এমনই বুদ্ধি লোপ পেলো?

তামিম আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছেন নয় বছর ধরে। সৌম্যও বয়সভিত্তিক দল মিলিয়ে পাঁচ বছরের বেশি সময় ধরে ‘সিরিয়াস’ ক্রিকেট খেলছেন। তারপরও এমন ভুল তারা কিভাবে করেন, তা বিস্ময় হয়ে এসেছে সমর্থকদের কাছেও।

গল টেস্টের প্রথম ইনিংসে যে ঘটনাটি ঘটেছিলো, তা হলো, স্পিন বল খেলতে গিয়ে লাইন মিস করেন তামিম। তার ব্যাটের খুব কাছ দিয়ে বল যায় কিপারের কাছে। লঙ্কান কিপার কট বিহাইন্ডের আবেদন করেন। আম্পায়ার তার আবেদন নাকচ করে দেন। কারণ বলটা তামিমের ব্যাটে একটুও লাগেনি।

এরপর তামিম করলেন কী— রান নেয়ার জন্য দৌড় শুরু করলেন, হঠাৎই! তার এমন আচমকা ‘রান নেয়া’ দেখে হয়তো লঙ্কান ফিল্ডাররাও চমকে গিয়েছিলেন! তবে তার মতো ‘ব্রেইন ফেইড’ তারা হননি, দ্রুত ভেঙে দিয়েছেন তামিমের স্ট্যাম্প।

ওই দিনের খেলা শেষে ব্যাপারটা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে সংবাদ সম্মেলনেও। বাংলাদেশের প্রতিনিধি হয়ে আসা প্রধান চান্দিকা হাথুরুসিংহে ব্যাপারটিকে তামিমের ‘ব্রেইন ফেইড’ বলে আখ্যায়িত করেছেন।

‘ব্রেইন ফেইডের’ শিকার হয়েছেন সৌম্যও। দ্বিতীয় ইনিংসে আসেলা গুনারত্নের বল তার স্ট্যাম্পে হালকা করে আঘাত করে বেল ফেলে দেয়। সঙ্গে আউটের উল্লাসে মেতে উঠেন লঙ্কান ফিল্ডাররা। এ পরিস্থিতিতে সৌম্য পিছনে না তাকিয়েই রিভিউয়ের আবেদন করে বসেন। তিনি যে বোল্ড হয়েছেন, এটা তিনি বুঝতেই পারেননি। কটবিহাইন্ড হয়েছেন ভেবে করেছেন রিভিউয়ের আবেদন, কারণ তিনি নিশ্চিত ছিলেন যে বলটা তার ব্যাটে লাগেনি!

গল টেস্টে ২৫৯ রানের বিশাল এমনিতেই লজ্জা হয়ে এসেছে বাংলাদেশের জন্য। তার উপর এই দুই ব্যাটসম্যানের হাস্যকর ভুল; লজ্জাটা যেনো আরো বাড়িয়েই দিলো। প্রায় একই রকম ভুল করেছেন মুমিনুল হকও। এলবিডব্লিউ হওয়ার পর রিভিউয়ের আবেদন করে থার্ড আম্পায়ারের সিদ্ধান্তের আগেই ড্রেসিংরুমের পথ ধরেন তিনি!