আজ সোমবার সকাল ৮:৪১, ২১শে আগস্ট, ২০১৭ ইং, ৬ই ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৮শে জিলক্বদ, ১৪৩৮ হিজরী

ঢাবি লোগো ব্যবহার বিতর্কে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের রাস্তা অবরোধ, গাড়ি ভাংচুর

নিউজ ডেস্ক | বার্তা বাজার .কম
আপডেট : মার্চ ১২, ২০১৭ , ১২:১০ পূর্বাহ্ণ
ক্যাটাগরি : জাতীয়,লিড নিউজ
পোস্টটি শেয়ার করুন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত বিভিন্ন কলেজের শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়ের হয়ে খেলায় অংশগ্রহণ ও লোগো ব্যবহার করা নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা মনে করছেন- অধিভুক্ত কলেজগুলো বিশ্ববিদ্যালয়ের লোগো ব্যবহার কিংবা খেলায় অংশগ্রহণ করতে পারে না।

অন্যদিকে সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ের শারীরিক শিক্ষা কেন্দ্রের পরিচালক একটি অনলাইন পোর্টালকে বলেছেন, ‘অধিভুক্ত কলেজের শিক্ষার্থীরাও বিশ্ববিদ্যালয়ের হয়ে খেলায় অংশ নিতে পারবেন। ‘

পরিচালকের এ বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা রাস্তা অবরোধ ও গাড়ি ভাংচুর করে।

শনিবার রাত ৮টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে অবস্থান নিয়ে তারা এ ভাংচুর চালায়।

এ সময় শিক্ষার্থীরা দুটি গাড়ি ভাংচুর করে এবং ৩০ মিনিটের মতো সড়ক অবরোধ করে রাখে।

পরিস্থিতি বেগতিক দেখে নীলক্ষেতসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকটি প্রবেশপথে ব্যারিকেড দিয়ে যানবাহন প্রবেশ বন্ধ রাখে পুলিশ।

পরে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় ও বিশ্ববিদ্যালয় শাখার শীর্ষ নেতারা ঘটনাস্থলে আসেন এবং আন্দোলনে একাত্মতা ঘোষণা করেন।

এর কিছুক্ষণ পর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর অধ্যাপক ড. এম আমজাদ আলী ঘটনাস্থলে এসে ছাত্রলীগ ও সাধারণ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বললে আন্দোলন স্থগিত করা হয়।

এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকের বাসভবনের সামনে জড়ো হয় তারা।

সেখান থেকে দুই শতাধিক শিক্ষার্থী টিএসসি মোড়ে আসে।  এ সময় আন্দোলনকারীরা বলে, অধিভুক্ত কলেজগুলোকে কোনোভাবেই বিশ্ববিদ্যালয়ের হয়ে খেলতে দেয়া যাবে না।  তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের লোগোও ব্যবহার করতে পারবে না।

আন্দোলনকারীরা প্রশ্ন রেখে বলেন, ‘তারা যদি সেটি করার অনুমতিই পায়, তাহলে তীব্র প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পাওয়া শিক্ষার্থীদের সঙ্গে অধিভুক্ত কলেজের শিক্ষার্থীদের পার্থক্য কোথায়?’

এসময় তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে অধিভুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলোর সমাবর্তন দেয়া বন্ধেরও দাবি জানান।

এ বিষয়ে ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইন যুগান্তরকে বলেন, সাধারণ শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক দাবিতে আমাদের সমর্থন রয়েছে।  আমরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেছি।  এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া না হলে পরবর্তী আন্দোলনেও আমাদের সমর্থন থাকবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের হয়ে খেলায় অংশগ্রহণের বিষয়ে শারীরিক শিক্ষা কেন্দ্রের পরিচালক শওকতুর রহমান যুগান্তরকে বলেন, ‘আমি একটি অনলাইন পোর্টালকে বলেছিলাম, অনুমতি সাপেক্ষে অধিভুক্ত কলেজের শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের হয়ে খেলতে পারবে।  তবে সেই বক্তব্য আমি প্রত্যাহার করে নিচ্ছি। ‘

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর অধ্যাপক ড. এম আমজাদ আলী যুগান্তরকে বলেন, অধিভুক্ত কলেজগুলো বিশ্ববিদ্যালয়ের হয়ে খেলতে পারবে না এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের লোগোও ব্যবহার করতে পারবে না।  এছাড়া অধিভুক্ত কলেজগুলোর আলাদা সমাবর্তনের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিল আলোচনা করে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজগুলো আগে থেকেই বিশ্ববিদ্যালয়ের হয়ে খেলতে পারত না এবং এখনও খেলতে পারবে না।