১৯, জুলাই, ২০১৮, বৃহস্পতিবার | | ৬ জ্বিলকদ ১৪৩৯

৩১শে মে’র মধ্যে নিবন্ধনের দাবি বাংলাদেশ কংগ্রেসের

আপডেট: মে ১২, ২০১৮

৩১শে মে’র মধ্যে নিবন্ধনের দাবি বাংলাদেশ কংগ্রেসের

“আর নয় কালক্ষেপন, দ্রুত চাই নিবন্ধন” এই স্লোগানকে সামনে রেখে আগামি ৩১শে মে’র পূর্বে নিবন্ধন প্রদানের দাবীতে বাংলাদেশ কংগ্রেস সহ নিবন্ধন প্রত্যাশী কয়েকটি রাজনৈতিক দল অাজ ১২ মে শনিবার সকাল ১১ টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন করে। বাংলাদেশ কংগ্রেসের চেয়ারম্যান এ্যাড. কাজী রেজাউল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বাংলাদেশ মানবাধিকার আন্দোলন, বাংলাদেশ রিপাবলিকান পার্টি, বেঙ্গল জাতীয় কংগ্রেস, জনতার কথা বলে, দেশপ্রেমিক নাগরিক পার্টি, প্রভূতি দল অংশগ্রহন করে।

মানববন্ধনে সভাপতির বক্তব্যে বাংলাদেশ কংগ্রেসের চেয়ারম্যান এ্যাড. কাজী রেজাউল হোসেন বলেন, অতি দ্রুত নিবন্ধন দিয়ে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করার পর্যাপ্ত সময় দিতে হবে। নির্বাচনী প্রস্তুতির জন্য পর্যাপ্ত সময় প্রয়োজন। সেজন্য ৩১শে মে’র মধ্যে আমরা দলের নিবন্ধন চাই।

বাংলাদেশ মানবাধিকার আন্দোলনের চেয়ারম্যান খাজা মহিবুল্লাহ শান্তিপূরী বলেন, নির্বাচনের মুখোমুখি দাড়িয়ে আমরা। অথচ নিবন্ধন না দিলে নতুন দলগুলি কিভাবে নির্বাচনে অংশ নেবে? বড় দলগুলি যেখানে ইতিমধ্যে নির্বাচনী কার্যক্রম শুরু করেছে, সেখানে আমরা এখনো নিবন্ধন পেলাম না।

বেঙ্গল জাতীয় কংগ্রেসের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার আবুল হোসেন বলেন, গণতন্ত্রকে সুসংহত করতে হলে দ্রুত নতুন নতুন দলের নিবন্ধন দিয়ে তাদেরকে নির্বাচন করার সুযোগ দিতে হবে।

বাংলাদেশ রিপাবলিকান পার্টির চেয়ারম্যান একেএম আবু হানিফ হৃদয় বলেন, নিবন্ধিত পুরাতন দলগুলির অধিকাংশের দৃশ্যমান কর্মকান্ড নেই। এখন দরকার গতিশীল নতুন দলগুলিকে নিবন্ধন দিয়ে দেশগঠনে কাজ করার সুযোগ প্রদান। সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বাংলাদেশ কংগ্রেসের মহাসচিব এ্যাড. মো. ইয়ারুল ইসলাম।

উল্লেখ্য যে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহনের জন্য ইতিমধ্যে নির্বাচন কমিশনে নতুন করে ৭৬ টি রাজনৈতিক দল নিবন্ধনের জন্য আবেদন করেছে। চলছে যাচাই বাছাইয়ের কাজ। নিবন্ধনের জন্য সকল শর্ত পূরন সাপেক্ষে নতুন দলকে নিবন্ধন দেয়া হবে বলে জানান নির্বাচন কমিশন।