বরিশাল উত্তর জেলা যুবদলের কমিটি গঠণ

হিজলা প্রতিনিধি : বরিশাল উত্তর জেলা যুবদলের কমিটি গঠণ হওয়ায় সকল ইউনিটের তৃনমূল যুবদল কর্মীরা সাংগঠনিক তৎপরতা বৃদ্ধির জন্য উজ্জীবিত হলেও গৌরনদীর বদিউজ্জামান মিন্টু সহ গুটিকয়েক নেতা কমিটি গঠণ করায় অসন্তোষ প্রকাশ করে বিভিন্ন ধরনের অপতৎপরতায় লিপ্ত হওয়ার পাশাপাশি দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের কর্মকান্ডে লিপ্ত হওয়ায় তৃনমূল নেতাকর্মীরা অসন্তোষ।
হিজলা যুবদল যুগ্ম আহবায়ক দেওয়ান সালাউদ্দিন রিমন বলেন, দীর্ঘ ১১ বছর যাবৎ বরিশাল উত্তর জেলা যুবদল কমিটি গঠণ হলেও জেলা সভাপতি সম্পাদক কোন উপজেলা কিংবা পৌর এলাকায় সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালনার দিক নির্দেশনা দেননি। এমনকি তৃনমূল পর্যায়ের কোন নেতাকর্মীকে তারা সঠিকভাবে চেনেন না। এছাড়াও তাদের বিরুদ্ধে রয়েছে অর্থের বিনিময়ে কমিটি গঠণ। কোন কোন উপজেলায় গোপনে ২/৩টি করে কমিটি গঠণ করে আর্থিকভাবে লাভবান হলেও দলকে অধিকতর সংগঠিত করার জন্য দলীয় কিংবা জাতীয় কোন কর্মসূচি পালন করেননি। বদিউজ্জামান মিন্টু তার এলাকায় নেতাকর্মীদের কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছেন। এর পিছনে রয়েছে তার বিভিন্ন ধরণের নেশা গ্রহণ ও বিক্রয়ের অভিযোগ। ইয়াবাসহ বিভিন্ন মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত হওয়ায় নেতাকর্মীরা তার থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। তিনি প্রভাবশালী এক আওয়ামীলীগ নেতার আত্মীয়তার সুবাদে সরকার বিরোধী কর্মসূচি পালন না করে দলের কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ধরনের অপতৎপরতায় লিপ্ত ছিলেন। তিনি গৌরনদীর প্রভাবশালী এক আওয়ামীলীগ নেতা যিনি একটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তার সাথে দীর্ঘ ১০ বছর যাবৎ সকল ধরনের সখ্যতা রেখে সার্বক্ষনিক তার সাথে সময় দিয়েছেন।
পাশাপাশি জেলা বিএনপি নেতৃবৃন্দসহ উপজেলা ও গৌরনদী পৌর বিএনপি’র নেতৃবৃন্দের নামে মামলা মোকদ্দমাসহ হয়রানী করে আসছে বলে অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে গৌরনদী উপজেলা যুবদলের এক যুগ্ম আহবায়ক নাম প্রকাশ না করার শর্তে এ প্রতিবেদককে জানান, বদিউজ্জামান মিন্টু একজন চিহ্নিত সন্ত্রাসী, মাদক সেবী ও মাদক বিক্রেতা। তার দ্বারা দলের কর্মকান্ড পরিচালনা তো দুরের কথা দলীয় নেতাকর্মীরা ক্ষতিগ্রস্থ হওয়া ছাড়া কোন কিছুই তিনি উপহার দিতে পারেন নি। তিনি গৌরনদী উপজেলা ও পৌর কমিটি একই সময়ে কয়েকটি গঠণ করে গৌরনদীতে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করেন। তাকে নিভৃত করার চেষ্টা যখন যে নেতা করেছেন তিনি তার বিরুদ্ধে প্রকাশ্য হুমকি ধামকি ও আত্মীয় আওয়ামীলীগ নেতার মাধ্যমে অপদস্থ করার হুমকি সহ হয়রানী করেছেন। বর্তমানে যে কমিটি গঠণ করা হয়েছে তাতে আমরা তৃনমূল নেতাকর্মীরা সন্তুষ্ট।
বিভিন্ন ধরনের অসাংগঠনিক কার্যকলাপ ও মাদক সেবন এবং বিক্রয়ের অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে বদিউজ্জামান মিন্টু বলেন, দীর্ঘদিন যাবৎ গৌরনদী আগৈলঝাড়ার অধিকাংশ নেতারা আমার বিরুদ্ধে লেগে আছে। তারাই আমার বিরুদ্ধে বদনাম ছড়াচ্ছে।

You might also like