মন্দিরের জায়গা জোরপূর্বক দখল করে রাস্তা নির্মাণ

রাজশাহী

শেরপুর(বগুড়া)প্রতিনিধি: বগুড়ার শেরপুরের বানিয়াগোন্দাইল এলাকায় কালীমাতা মন্দিরের দেবোত্তর জায়গা প্রভাবশালীরা জোরপূর্বক দখল করে রাস্তা নির্মানের অভিযোগ উঠেছে। এর প্রতিবাদে দখলকারিদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যাবস্থাসহ নিরাপত্তাহীন জীবন যাপনের প্রতিকারে গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় শেরপুর উপজেলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন ওই মন্দির পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দ।

মন্দির কমিটির সভাপতি সুদেব সরকার লিখিত অভিযোগে বলেন, আমাদের পূর্ব পুরুষরা উপজেলার কুসুম্বী ইউনিয়নের বানিয়াগোন্দাইল মৌজার জেএল নং-১৯. সিএস খতিয়ান-৭, এম আর আর-১৭ ডিপি-২৮ সাবেক দাগ-৬৬, হাল-২৬২, পরিমাণ-৯ শতক জমি কালীমাতার মন্দিরের নামে দেবোত্তর হিসেবে দান করে। সেই সম্পত্তিতে মন্দির তৈরী করে কালি পুজাসহ বিভিন্ন পূজা অর্চনা করে আসছি। ওই মন্দিরের ঘর সংস্কার ও সীমানা নির্ধারণ পূর্বক বেড়া তৈরী করতে গেলে একই এলাকার জনৈক আশরাফ আলী, আব্দুল হাকিম তাদের নিজ বাড়ীতে চলাচলরত রাস্তা থাকলেও মন্দিরের জায়গা দখল করে রাস্তা নির্মাণ করছে এবং বাধা দেয়ায় মন্দির কমিটির নেতৃবৃন্দকে বিভিন্ন হুমকী দিয়ে আসছে।
এদিকে ওই মন্দিরের জায়গায় জোরপূর্বক রাস্তা নির্মাণের অপচেষ্টা রোধ পূর্বক দখলমুক্ত করতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন স্থানীয় হিন্দুরা। এসময় মন্দির পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক শুম্ভচরন সরকার, ধীরেন্দ্রনাথ সরকার, ব্রজেন্দ্রনাথ, সবিন চন্দ্র, শচিন্দ্রনাথসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।