চার মাস পাগলের মতো ঘুরেছি, পাত্তাই দেয়নি নাঈমাঃ তাসকিন

ক্রিকেট

তরুণ পেসার তাসকিন বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন স্কুল জীবনের প্রেম, সাইদা রাবেয়া নাঈমার সঙ্গে। বিয়ের এক ঘণ্টা আগেও যার তাসকিনকে হারানোর ভয় ছিল। তবে মুহূর্তের জন্যও বিশ্বাস হারায়নি।

একমাত্র পুত্রকে নিয়ে এবার তাদের প্রথম ভালোবাসা দিবস। তাদের জীবনে এবারের ‘ভ্যালেন্টাইন ডে’ তাই একেবারেই অন্যরকম। সেন্ট ভ্যালেন্টাইন বেঁচে থাকলে ভালোবাসা দেখে হয়তো ঈর্ষা করতেন, দিতেন আশীর্বাদও। হয়তো বলতেন- ইশ!

এমন ভালোবাসাই দেখতে চেয়েছিলাম। তাসকিন বলেন, আমার কাছে ভালোবাসার মানে- বিশ্বাস। যা না থাকলে কোনো দিনও সুখী হওয়া যায় না।’ অন্যদিকে নাঈমা মনে করেন প্রেম মানে সম্মান। একে ওপরের চাওয়া পাওয়ার প্রতি সম্মান না থাকলে ভালোবাসা হয় না।

কিভাবে শুরু তাসকিনের প্রেম? তাসকিন বলেন, আমি তখন দশম শ্রেণিতে পড়ি। ওকে (নাঈমা) দেখেই পাগল হয়ে গিয়েছিলাম। চার মাস পাগলের মতো ঘুরেছি, পাত্তাই দেয়নি আমাকে। অনেক কষ্টে রাজি হয়েছে।

এরপর তো কত ‘ভ্যালেন্টাইন ডে’ এক সঙ্গে কাটিয়েছি। এমন দিন আসলেই নানান উপহার দিতাম। শেষ মনে আছে অনেক বড় একটি পুতুল দিয়েছিলাম। যখন জাতীয় দলে সুযোগ পেলাম তখন ঘুরতে যেতে অনেক সমস্যা হতো। জনসম্মুখে ঘুরতে পারতাম না। আবার দেশের বাইরে গেলে এক সঙ্গে বিশেষ দিন কাটানো যেত না।