ভোলার ইলিশায় বিধবার জমি দখল করে মার্কেট নির্মান

অপরাধ ও দুর্নীতি

অমি আহমেদ, ভোলা প্রতিনিধি: আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ভোলা সদর উপজেলার পরানগঞ্জের বিরোধীয় জমিতে মার্কেট নির্মানের কাজ অব্যাহত রেখেছে স্থানীয় বিএনপি নেতা বিল্লাল হোসেন লিটন বাহিনী।

আদালত কর্তৃক নিষেধাজ্ঞা থাকলেও তা তোয়াক্কা না করে ৫ তলা ভবনের নির্মান কাজ অব্যাহত রেখেছে লিটন রাঢ়ি। পরে বুধবার (১৩ ফেব্রুয়ারী) ভোলা সদর থানার ওসি মো ছগির মিঞার নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নির্মান কাজ বন্ধ করে।

ভোলা সদরের পরানগঞ্জে কাজী বাড়ি এলাকার মৃত ইয়াকুব আলী কাজীর মেয়ে বিধবা মেহেরজান বাবার সম্পতিতে ঘর নির্মান করে বসবাস করত। কয়েক বছর আগে জমি ক্রয় করার নাম করে বিধবা মেহেরজানের জমি দখল করে স্থানীয় বিএনপি নেতা মোঃ কালাম মেম্বার ও তার ভাই বিল্লাল হোসেন লিটন। বিরোধীয় জমিতে মিল, দোকান ঘর নির্মান করে অবৈধভাবে ভোগদখল করে তার। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয়ভাবে কয়েকবার সমাধানের চেষ্টা করা হলেও প্রভাবশালী হওয়ায় লিটন গংদের বিরুদ্ধে কিছুই করা সম্ভব হয়নি। কয়েক মাস আগে ওই জমিতে ৫ তলা ভবন নির্মান কাজ শুরু করে। পরে মেহেরজান বাদী হয়ে ভোলা সদর জজ আদালতে মামলা দায়ের করেন।

বিজ্ঞ আদালত বিষয়টি বিবেচনা করে জমিতে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। কিন্তু লিটন বাহিনী আদালতের নিষেধের তোয়াক্কা না করে নির্মান কাজ অব্যাহত রাখছে। পরে ভোলা সদর থানার ওসি মো ছগির মিঞার নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নির্মান কাজ বন্ধ করে।

এব্যাপারে বাদী মেহেরজান বলেন, আমার পিতার জমিতে আমি ঘর তুলে বসবাস করছিলাম। কিন্তু কয়েক বছর আগের লিটন রাঢ়ির নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা আমার জমি জোরপূর্বক দখর করে। আমি অনেকের কাছে বিষয়টি নিয়ে গিয়েছিলাম। কিন্তু লিটন রাঢ়ি প্রভাবশালী হওয়ার কারনে সমাধান পাইনি।

কয়েক মাস আগে লিটন রাঢ়ি আমার জমিতে ৫ তলা ভবন নির্মান শুরু করে। আমি আদালতে মামলা করেছি। আদালত মার্কেট নির্মানের কাজে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। কিন্তু তারা নিষেধ অমান্য করে কাজ শুরু করে।