ফিলিপিন্সের সমালোচক নিউজ ওয়েবসাইট র‌্যাপলারের সিইও গ্রেফতার

আন্তর্জাতিক

ফিলিপিন্সে সরকারের সমালোচক নিউজ ওয়েবসাইট র‌্যাপলারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মারিয়া রেসাকে গ্রেপ্তার করেছে কর্তৃপক্ষ।

রাজধানী ম্যানিলায় সাইটটির সদরদপ্তর থেকে বুধবার তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। ফিলিপিন্সে প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতের্তে প্রশাসনের সমালোচক সংবাদ প্রতিষ্ঠানগুলোর ওপর দমনপীড়ন নিয়ে উদ্বেগজনক পরিস্থিতির মধ্যে এ গ্রেপ্তারের ঘটনা ঘটল।

র‌্যাপলারের সাংবাদিকরা ঘটনাটি ফেইসবুক এবং টুইটারে সরাসরি প্রচার করেছে। এতে দেখা গেছে, দেশটির ন্যাশনাল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনস (এনবিআই) সাইবারক্রাইম ইউনিটের কর্মকর্তারা রেসাকে গ্রেপ্তারের সময় তার সঙ্গে কথা বলছেন। এনবিআই ফিলিপিন্সের বিচার বিভাগের অধীনস্ত একটি সরকারি সংস্থা।

সাংবাদিকরা ঘটনার ছবি এবং ভিডিও নেওয়ার সময় এনবিআই কর্মকর্তারা তাদেরকে বাধাও দেন বলে শোনা গেছে। রেসাকে র‌্যাপলারের কার্যালয় থেকে তারাই ধরে নিয়ে যান বলে পরে এক টুইটে জানিয়েছেন র‌্যাপলারের নিউজ এডিটর মিরিয়াম গ্রেস গো।

রেসার বিরুদ্ধে ‘অনলাইনে পরনিন্দা’ বা মানহানিকর বিবৃতি দেওয়ার অভিযোগ করা হয়েছে। এর আগেও তার বিরুদ্ধে ছিল আরো নানা অভিযোগ। রেসা একে নিউজ সাইটটির প্রকাশনা বন্ধ করার জন্য প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতের্তে সরকারের চেষ্টা বলেই মন্তব্য করেছেন।

প্রেসিডেন্ট দুতের্তের মতে, রেসার এ ওয়েবসাইটটি ‘ভুয়া নিউজ সাইট’। রেসার বিরুদ্ধে তোলা অভিযোগগুলো রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত- এমন অভিযোগ এর আগে অস্বীকারও করেছেন তিনি।

র‌্যাপলার নিউজ সাইটের অনুসন্ধানী সাংবাদিকতার প্রধান বিবিসি নিউজকে বলেছেন, মারিয়া রেসাকে যাতে জেলে কাটাতে না হয় সে চেষ্টাই তারা করছেন। তিনি বলেন, “রেসা আপাতত এনবিআই- তে আছেন। তিনি শিগগিরই জামিনের আবেদন করতে পারবেন বলে আমরা আশা করছি।”

র‌্যাপলারের ইতিহাস:

২০১২ সালে মারিয়া রেসা এবং আরো তিন সাংবাদিক মিলে প্রতিষ্ঠা করেন র‌্যাপলার। কঠোর অনুসন্ধানী সাংবাদিকতার জন্য এটি তখন থেকেই ফিলিপিন্সে পরিচিত হয়ে ওঠে।

প্রকাশ্যে প্রেসিডেন্ট দুতের্তের সমালোচনা করা কয়েকটি মিডিয়া প্রতিষ্ঠানের মধ্যে এটিও একটি। র‌্যাপলার প্রায়ই প্রেসিডেন্টের বিভিন্ন বক্তব্য নিয়ে প্রশ্ন তোলে এবং কখনো কখনো মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধের মত তার প্রাণঘাতী নীতির সমালোচনাও করে।

দুতের্তের মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ নিয়ে র‌্যাপলার অসংখ্য প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। দুতের্তের মাদক বিরোধী এ নীতিতে গত তিন বছরে ফিলিপিন্সে প্রাণ গেছে প্রায় ৫ হাজার মানুষের।

এছাড়া, গত ডিসেম্বরে দুতের্তে জনসম্মুখে এক বক্তব্যে এক গৃহপরিচারিকাকে যৌন নির্যাতন করার যে স্বীকারোক্তি দিয়েছিলেন সেটি নিয়েও র‌্যাপলার প্রতিবেদন করেছিল।

প্রেসিডেন্ট এ সব প্রতিবেদনকেই ভুয়া খবর বলে উড়িয়ে দিয়েছেন এবং র‌্যাপলারের সাংবাদিকদের সরকারি কর্মকাণ্ড নিয়ে প্রতিবেদন লেখা নিষিদ্ধ করেছেন।

সাংবাদিক মারিয়া রেসা:

ফিলিপিন্সের প্রবীণ সাংবাদিক মারিয়া রেসা র‌্যাপলার প্রতিষ্ঠার আগে সিএনএন এ প্রথমে ম্যানিলার ব্যুরো চিফ হিসাবে কাজ করেছিলেন এবং পরে জাকার্তায় কাজ করেন। তিনি সিএনএন- এ দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার সন্ত্রাস বিষয়ক প্রধান অনুসন্ধানী রিপোর্টারও ছিলেন।

রিপোর্টিংয়ের জন্য তিনি অনেক আন্তর্জাতিক পুরস্কার জিতেছেন। প্রতিকূল পরিবেশে তার কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ তিনি ২০১৮ সালে টাইম ম্যাগাজিনের ‘পারসন অব দ্য ইয়ার’ নির্বাচিত হন।

তার বিরুদ্ধে সর্বসাম্প্রতিক অভিযোগটি তোলা হয়েছে সাত বছর আগের এক প্রতিবেদনকে কেন্দ্র করে। খুন এবং মানব ও মাদক পাচারের একটি ঘটনায় এক ব্যবসায়ীর নাম জড়িয়ে ওই প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছিল। এক গোয়েন্দা রিপোর্টের তথ্যের বরাত দিয়ে ওই প্রতিবেদন করা হয়।