বড় ব্যবধানে হারিয়ে হোয়াইটওয়াশ এড়াল ইংল্যান্ড

ক্রিকেট

সেন্ট লুসিয়া টেস্টে স্বাগতিক উইন্ডিজদের ২৩২ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়ে হোয়াইটওয়াশ এড়াল জো রুটের ইংল্যান্ড। উইন্ডিজদের হয়ে শেষ পর্যন্ত লড়াই করে গেছেন রস্টন চেইজ। বাকি ব্যাটসম্যানরা আসা যাওয়ার মধ্যে থাকলেও সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন চেইজ। শেষ ইনিংসে ইংল্যান্ডের ছুঁড়ে দেয়া ৪৮৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ২৫২ রানে অল আউট হয় স্বাগতিকরা।

দিনের শুরুতে ৪ উইকেটে ৩২৫ রান নিয়ে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ৫.২ ওভার ব্যাট করেই ইনিংস ঘোষণা করে ইংল্যান্ড। সেঞ্চুরি করে অপরাজিত থাকা জো রুট ১২২ রানে আউট হলেই ইনিংস ঘোষণা করে সফরকারীরা।

আকাশ ছোঁয়া রান তাড়া করতে নেমে জিমি অ্যান্ডারসন ও মার্ক উডের বোলিংয়ের সামনে পড়ে উইন্ডিজ টপ অর্ডার। দ্রুত উপরের সারির চার উইকেট তুলে নেন এই দুই পেসার। মিডেল অর্ডারে বিপদ সামাল দেয়ার দায়িত্ব নেন চেইজ ও হেটমায়ার।

৪৫ রানের মাঝারি মানের জুটি গড়ে এই দুই ব্যাটসম্যান। মধ্যাহ্ন বিরতির পর হেটমায়ার আউট হলে উইন্ডিজদের হার প্রায় নিশ্চিত হয়ে যায়। সেখান থেকে শেন ডওরিচ ও কেমার রোচদের সাথে নিয়ে লড়াই চালিয়ে সেঞ্চুরি তুলে নেন চেইজ।

চেইজকে সেঞ্চুরি তুলে নিয়ে সাহায্য করেছেন ইনজুরির কারণে মাঠ ত্যাগ করা কিমো পোল। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে ব্যাট করতে নেমে ৯৮ রানে থাকা চেইজের পঞ্চম সেঞ্চুরি তুলে নিতে সাহায্য করেছেন।

ইংল্যান্ডের হয়ে অ্যান্ডারসন ও মইন আলি ৩টি করে উইকেট নিয়েছেন। ২ উইকেট নিয়েছেন স্টোকস। তবে প্রথম ইনিংসে পাঁচ উইকেট শিকার করে উইন্ডিজদের ম্যাচ থেকে ছিটকে ফেলে দেয়া মার্ক উড ম্যাচ সেরা হয়েছেন।

এর আগে প্রথম দুই ম্যাচে জয় তুলে নিয়ে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জয় করেছে উইন্ডিজরা। সর্বোচ্চ ১৮ উইকেট শিকার করে সিরিজ সেরা হয়েছেন কিমার রোচ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ইংল্যান্ড ১ম ইনিংসঃ ২৭৭

বাটলার ৬৭, স্টোকস ৭৯, কিমার রোচ ৪/৪৮

উইন্ডিজ ১ম ইনিংসঃ ১৫৪

ক্যাম্পবেল ৪১, ডওরিচ ৩৮, মইন আলি ৪/৩৬, মার্ক উড ৫/৪১

ইংল্যান্ড ২য় ইনিংসঃ ৩৬১/৫

রুট ১২২, বাটলার ৫৬, গ্যাব্রিয়েল ২/৯৫

উইন্ডিজ ২য় ইনিংসঃ ২৫২

চেইজ ১০২, জোসেফ ৩৪, অ্যান্ডারসন ৩/২৭।

ফলাফলঃ ইংল্যান্ড ২৩২ রানে জয়ী।