উজিরপুরে কলেজছাত্র হত্যার ঘটনায় মামলা, বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন

অপরাধ ও দুর্নীতি বরিশাল

জিব্রান কাদির, উজিরপুর (বরিশাল) প্রতিনিধি: বরিশালের উজিরপুর উপজেলার ভবানীপুর হাজী তাহের উদ্দিন ডিগ্রি কলেজের শেষ বর্ষের ছাত্র ও উজিরপুর উপজেলার জল্লা ইউনিয়নের মুন্সির তাল্লুক গ্রামের সরোয়ার হাওলাদারের পূত্র ইমরান হাওলাদারকে (২৫) শুক্রবার রাতে জবাই করে হত্যা করে অজ্ঞাতনামা দূবৃত্তরা।

এ ঘটনায় শনিবার রাতে নিহতের বাবা সরোয়ার হাওলাদার বাদি হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। হত্যার প্রতিবাদে ও ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারের দাবিতে রোববার সকালে উজিরপুরের মুন্সীরতাল্লুক শহীদ স্মরনিকা ডিগ্রী কলেজে উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধ কর্মসূচী পালন করেছে। অনতিবিলম্বে ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আদায়ের আন্দোলন কমিটি ঘোষনাসহ বৃহত্তর কর্মসূচী পালনের ঘোষনা দেন বক্তারা।

মুন্সীরতাল্লুক শহীদ স্মরনিকা ডিগ্রী কলেজে উদ্যোগে গতকাল (রবিবার) সকাল ১০টা বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে রামেরকাঠী-সাতলা সড়কের কাজীশাহ এলাকায় মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করে। সকাল ১০টা থেকে ১২ টা পর্যন্ত মানববন্ধন কর্মসূচীতে মুন্সীরতাল্লুক শহীদ স্মরনিকা ডিগ্রী কলেজে, মুন্সীরতাল্লুক শহীদ স্মরনিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়, মুন্সীরতাল্লুক আলীম মাদ্রসা, মুন্সীরতাল্লুক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ আশপাশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও ছাত্রছাত্রীরা অংশ নেন। এ ছাড়া এলাকার শত শত নারী পুরুষসহ কয়েক হাজার মানুষ একাত্মতা ঘোষনা করে স্বতস্ফুর্তভাবে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেন।

বিক্ষোভ ও মানববন্ধন শেষে প্রতিবাদ সমাবেশের সভাপতিত্ব করেন মুন্সীরতাল্লুক শহীদ স্মরনিকা ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ সরদার জহির উদ্দিন। বক্তব্য রাখেন জল্লা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মো. হাবিবুর রহমান মল্লিক, মুন্সীরতাল্লুক শহীদ স্মরনিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আলতাবুর রহমান, মুক্তিযোদ্ধা মো. জাকারিয়া আলম, মুন্সীরতাল্লুক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আসাদুজ্জামান হিরো মল্লিক, মাদ্রসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি আজিজুর রহমান মল্লিক, কলেজ গভার্নিবডির সদস্য মো. মাহাবুবুর রহমান প্রমূখ। বক্তারা অনতিবিলম্বে কলেজ ছাত্র ইমরান হাওলাদার হত্যার ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তার করে ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

উজিরপুর মডের থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শিশির কুমার পাল বলেন, কলেজ ছাত্র হত্যার ঘটনায় শনিবার রাতে নিহতের বাবা সরোয়ার হাওলাদার বাদি হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে। মামলার তদন্তে অনেকটা অগ্রগতি হয়েছে। খুব শীঘ্রই হত্যার ক্লুসহ আসামিদে গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় আনা হবে।

উল্লেখ্য উজিরপুর উপজেলার ভবানীপুর হাজী তাহের উদ্দিন ডিগ্রি কলেজের ছাত্র শুক্রবার সকালে মায়ের সঙ্গে দেখা করতে বাড়িতে মুন্সিরতাল্লুক গ্রামে আসে। শুক্রবার রাতে চাচা আবুল কালাম আজাদের বাসায় বিপিএল ক্রিকেট খেলা দেখে রাতের খাবার খেতে নিজ ঘরে যায়। পরে মোবাইলে একটি কল পেয়ে ঘর থেকে বের হয়ে অঅসার পরে রাতে বাড়ি ফিরেনি। পরের দিন শনিবার বাড়ির পাশে পরিত্যক্ত ভিটায় জবাই করা লাশ পাওয়া যায়।