সিলেটের তৈয়ব আলী বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক লোক?

জীবনযাত্রা ভিন্ন খবর

বাংলাদেশের সবচেয়ে বয়স্ক মানুষ সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার তৈয়ব আলী। তিনি প্রায় সাড়ে ছয় ফুট লম্বা।

উপজেলার ঘিলাছড়া ইউনিয়নের পশ্চিম যুধিষ্ঠিপুর গ্রামের বাসিন্দা তৈয়ব আলী। একসময় ছিলেন সুঠাম দেহের অধিকারী। তিনি এখনও সবল, নিজে নিজেই সব কিছু করতে পারেন। স্বাভাবিকভাবে চোখেও দেখেন।

তৈয়ব আলীর সঙ্গে আলাপ করে জানা যায়, তার বয়স ১৩৫ বছর। কিন্তু তার জাতীয় পরিচয়পত্রে লেখা হয়েছে তার জন্ম ১৯১২ সালে।

তিনি বলেন, এ তথ্য সঠিক নয়। নির্বাচনের সময় লোকজন এসে পরিচয়পত্র বানিয়েছে। তার বয়স কত তা জিজ্ঞেস না করেই অনুমান করে একটা সাল বসিয়ে দেয়া হয়েছে। তার নিজের হিসাব মতে জন্ম ১৮৮৪ সালে। হিসাব অনুযায়ী বর্তমানে বয়স চলছে ১৩৫ বছর। জানা যায়, তিনি ১০ ছেলে ও ৩ মেয়ের জনক।

বড় ছেলে শামসুল ইসলাম, যার বয়স ৮২ বছর। তার আগে বড় আরও দুজন মারা গেছেন।

তিনি জানান, সেই সময় ক্লাস ফোর পর্যন্ত পড়াশোনা করেছেন। ব্রিটিশ যুদ্ধ, ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন ১৯৭১ সালের স্বাধীনতাযুদ্ধ। তার মতে, স্বাধীনতাযুদ্ধ মাত্র কয়েক দিন আগের ঘটনা। সব কিছু গদগদ বলে দেন। দারুণ আত্মবিশ্বাসী তৈয়ব আলী বিভিন্ন ইতিহাসের সাক্ষী। তার বাবাও ছিলেন দীর্ঘজীবী মানুষ। বাবা আমজদ উল্লাহ মৃত্যূবরণ করেন ১১৩ বছর বয়সে।

এর আগে ইন্দোনেশিয়ায় সোদিমেদজো নামের ব্যক্তির বয়স ছিল ১৪৬ বছর। তিনি মারা যাওয়ার পর বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক মানুষ ছিলেন বাংলাদেশের পাবনা জেলার ফরিদপুর উপজেলার বিএল বাড়ির আহসান উদ্দিন শাহ্।

গত বছর তিনি মারা যান। স্থানীয় এলাকাবাসীর দাবি- তিনিই হবেন বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক লোক।