যে কারণে ৩৮ দিন মৃত ছেলের সমাধি পাহাড়া দিলেন বাবা!

আন্তর্জাতিক

এক মাস হয়ে গেল সন্তান মারা গেছেন। আর সেই সন্তানের সমাধির পাশে এক দুই দিন নয় ৩৮ দিন বসে আছেন এক বাবা।

কারণ, ৪১ দিন মৃত ছেলের সমাধিকে পাহাড়া দিলে ফের বেঁচে উঠবে সে। এমন বিশ্বাসেই ৩৮ দিন অতিবাহিত করে ফেলেছিলেন তিনি।

এ ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের নেল্লোর জেলায়।

বিভিন্ন ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর, গত ৩৮ দিন ধরে ছেলের কবরের পাশে একনাগারে বসবাস করছেন নেল্লোর জেলার পেটলুরু গ্রামের বাসিন্দা থুপ্পাকুলা রামু।

স্থানীয় তান্ত্রিকের অন্ধবিশ্বাসে ভর করেই এ কাজটি করছেন বলে জানা গেছে।

স্থানীয়দের থেকে জানা গেছে, গত মাসে সোয়াইন ফ্লু-তে আক্রান্ত হয়ে তিরুপতির একটি সরকারি হাসপাতালে থুপ্পাকুলার ছেলে টি শ্রীনিবাসালু (২৬) মারা যান।

কুয়েতে একটি বেসরকারি সংস্থায় বহুদিন কাজ করে তিন মাস আগে ভারতে ফেরেন শ্রীনিবাসালু।

পরিবারের একমাত্র কর্মক্ষম ছেলেকে হারিয়ে দিশেহারা থুপ্পাকুলা। এরপরই ওই তান্ত্রিক দ্বারা প্রতারিত হন তিনি।

নেল্লোর থানা পুলিশ জানিয়েছে, স্থানীয় ওই তান্ত্রিকের আশ্বাসে ৩৮ দিন ধরে ছেলের সমাধি পাহারা দিচ্ছিলেন ৫৬ বছরের থুপ্পাকুলা।

এ ঘটনার কথা জানতে পেরেই পুলিশি হস্তক্ষেপে ওই সন্তান হারা বাবাকে গ্রামের বাড়িতে ফিরিয়ে আনা হয়।

পুলিশের দাবি, মৃত ছেলেকে ফিরিয়ে দেবার আশ্বাসে ৭ লাখ টাকা থুপ্পাকুলা থেকে হাতিয়ে নিয়েছে ওই তান্ত্রিক।

তবে ওই তান্ত্রিকের ওপর কোনোরকম পদক্ষেপ না নিতে অনুরোধ করে উল্টো পুলিশের কাছে থুপ্পাকুলার অভিযোগ, যে কোনও প্রথায় বিশ্বাস রাখার অধিকার রয়েছে তার।

এ ক্ষেত্রে তিনি কোনো অপরাধ করেননি বলে জানাননি তিনি।