মাদকের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১২

ঢাকা

।। মোঃ আল মামুন খান, সাভার প্রতিনিধি ।।

ঢাকার সাভারে মাদকের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় দু’পক্ষের সংঘর্ষে কমপক্ষে ১২ জন আহত হবার খবর পাওয়া গেছে। শনিবার (২৬ জানুয়ারি) সকালে সাভারের লালটেক এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, লালটেক এলাকার মাদ্রাসায়-ই বাগে জান্নাত চাপাইন এর পরিচালক এসকে ইব্রাহিম খলিল প্রতিবাদ করতে গেলে আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী ব্যক্তি মোঃ আব্দুল মান্নান এর নেতৃত্বে ১৫ থেকে ২০ জন মাদকসেবীর দল টিন শেডের বেড়া ভেঙ্গে তার বাড়িতে প্রবেশ করে এবং ছাত্র-ছাত্রীর মাঝে অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এতে হামলার সময় আহত হয় কমপক্ষে ১২ জন।

স্থানীয়রা জানায়, প্রতিদিন সাভারের লালটেক এলাকায় নির্জন জায়গায় ১৫ থেকে ২০ জনের দল এসে মাদক সেবন করে এবং বিভিন্ন সময় ঐ এলাকার মহিলাদের প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করে তারা। তাঁরা আরো বলেন, গাঁজা ও মাদক সেবনকালে পানি চাওয়ার নাম করে এরা অল্পবয়সী মেয়েদের শরীরে হাত দিয়ে শ্লীলতাহানি করার চেষ্টা করে।

এব্যাপারে মাদ্রাসায়-ই বাগে জান্নাত চাপাইন এর পরিচালক এসকে ইব্রাহিম খলিল জানান, আব্দুল মান্নানের নেতৃত্বে ১৫ থেকে ২০ জনের একটি দল দিনে রাতে তিনবার সকাল দুপুর সন্ধ্যায় এই নির্জন স্থানে মাদক গ্রহণ করে। এর প্রতিবাদ করতে গেলে তারা অস্ত্র, লাঠি-সোটা নিয়ে হামলা চালায়। এসময় ব্যাপক ভাংচুর চালায় তারা। তাদের হামলায় মাদ্রাসার পরিচালক, শিক্ষক, শিক্ষার্থী এবং তার পরিবার সহ আহত হয় ১০ জন বলেও জানান তিন।

এদিকে আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতা আব্দুল মান্নানের নিকট হামলার ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল অবৈধ জায়গা দখল করে বিল্ডিং নির্মাণ করতে চাইলে জায়গার মালিক আক্তার হোসেন নামে এক ব্যক্তি সাভার ইউনিয়ন এর চেয়ারম্যান সোহেল রানার নিকট একটি লিখিত
অভিযোগ দেয়। এসময় তার প্রতিবাদ করতে গেলে মাদ্রাসার লোকজন সংঘর্ষের ঘটনা ঘটায়। এতে করে তার পক্ষের দু’জন লোক আহত হয়।

তবে সাভার মডেল থানা পুলিশ জানায়, সংঘর্ষের ঘটনায় পাল্টাপাল্টি দু’পক্ষই লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

এব্যাপারে জানতে চাইলে সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল আওয়াল বলেন, দুজনের লিখিত অভিযোগের কথা শুনেছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। মাদক সেবনের বিরুদ্ধে সরকারের জিরো টলারেন্স রয়েছে। মাদক গ্রহন ও মাদক বিক্রির অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলেও জানান এই কর্মকর্তা।