১৬, জানুয়ারী, ২০১৯, বুধবার | | ৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪০

ছেলের সঙ্গে বিয়ে না দেয়ায় ছাত্রীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ

আপডেট: জানুয়ারি ১৪, ২০১৯

ছেলের সঙ্গে বিয়ে না দেয়ায় ছাত্রীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ

টাঙ্গাইলের সখীপুরে প্রায় তিন সপ্তাহ ধরে আটকে রেখে এক মাদরাসাছাত্রীকে (১৬) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় রোববার রাতে ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলার পর রাতেই অভিযুক্ত মজিবর রহমান (৪২) ও তার স্ত্রী আমেনা বেগমকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

উপজেলার কালিয়া ইউনিয়নের ধলীপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। ওই ছাত্রী স্থানীয় একটি মাদরাসার দশম শ্রেণির ছাত্রী।

মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ ডিসেম্বর ওই ছাত্রী উপজেলার কালিয়া বাজারে কেনাকাটার জন্য গিয়ে নিখোঁজ হয়। মজিবুর রহমান কালিয়া বাজার থেকে ওই ছাত্রীকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এরপর থেকে তাকে আটকে রেখে একাধিকবার ধর্ষণ করে।

ওই ছাত্রীর মা বলেন, অভিযুক্ত মজিবর প্রতিবেশী হওয়ায় আমার মেয়েকে তার প্রবাসী ছেলের বউ করার জন্য নানাভাবে প্রস্তাব দেন। তবে ওই প্রস্তাবে রাজি না হয়ে তাকে জানানো হয়েছিল, মেয়েকে আরও পড়াশোনা করিয়ে উচ্চশিক্ষিত করাবো। কিন্তু ওই লম্পট আমার মেয়ের সর্বনাশ করেছে। আমার মেয়ের শরীর আর মনের ওপর দিয়ে যা গেছে তার নিরাময় কে করবে? আমি এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করছি।

এ বিষয়ে সখীপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমির হোসেন জানান, মামলা দায়েরের পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে। তবে এখনো ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। তাকে উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।