১৬, জানুয়ারী, ২০১৯, বুধবার | | ৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪০

প্রধান শিক্ষকের অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও স্মারকলিপি প্রদান

আপডেট: জানুয়ারি ১৪, ২০১৯

প্রধান শিক্ষকের অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও স্মারকলিপি প্রদান

পাবনা প্রতিনিধি: অর্থ আত্মসাত ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণের অভিযোগে পাবনার সদ্য সরকারী সাঁথিয়া পাইলট উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিজয় দেবনাথের অপসারণের দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও স্মারকলিপি প্রদান করেছে ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। গতকাল সোমবার সকাল ১১টায় শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয় প্রাঙ্গন থেকে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে উপজেলা নির্বার্হী অফিসারের কার্যালয়ের সামনে হাজির হয়। এ সময় ব্যানার প্লে-কার্ড নিয়ে প্রধান শিক্ষকের অপসারণের দাবী জানিয়ে বিক্ষোভ করে এবং শিক্ষামন্ত্রী বরাবর দেয়া স্মারকলিপি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট প্রদান করে।

জানা গেছে, সাঁথিয়া সরকারী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিজয় কুমার দেবনাথকে সাময়িক ভাবে ১৫/১১/১৮ইং তারিখে বরখাস্ত করে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি। বরখাস্তের কারণ হিসেবে বলা হয়েছে পরপর দুটি অর্থ ও নিরীক্ষা কমিটির যাচাই-বাছাই এ প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের সুনির্দিষ্ট প্রমাণ পাওয়া গেছে। প্রধান শিক্ষক বিনা রশিদে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে বেতন, পরীক্ষার ফী সহ অন্যান্য খাতে যে অর্থ আদায় করেন তা ব্যাংকে জমা দেননা। দৈনন্দিন আয়-ব্যয়ের রেজিস্টার ও মাদার ক্যাশ বই দেখাতে ব্যর্থ হয়েছেন।

নানাবিধ খরচের বিল ভাউচারে রয়েছে ব্যাপক গরমিল। গত একবছরে শিক্ষকদের বেতনভাতা ও ঈদ বোনাস দেননি। তার বিরুদ্ধে কমপক্ষে ৬ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগের প্রমান পাওয়া গেছে। এ ছাড়া তিনি অভিভাবক, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সাথে অশালীন আচরণ করে থাকেন। গত ০৮-০৯-২০১৫ইং তারিখে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হিসেবে যোগদানের পর থেকে তার প্রশাসনিক দুর্বলতা,নানা অনিয়ম, অদক্ষতা ও শিক্ষকদের সাথে সমন্বয়য়ের অভাবে বিদ্যালয়ের শিক্ষার মানের ্ক্রমঅবনতি হয়েছে। বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি কর্তৃক ১৫/১১/১৮ইং তারিখে প্রধান শিক্ষককে বরখাস্ত করে এবং ১৭/১১/১৮ইং তারিখের মধ্যে সহকারী প্রধান শিক্ষকের কাছে দায়িত্ব বুঝে দিতে বলা হলেও অদ্যাবধি প্রধান শিক্ষক ম্যানেজিং কমিটির সিদ্ধান্তকে উপেক্ষা করে চলেছেন।

সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহাঙ্গীর আলমের নির্দেশে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সিদ্দিকুর রহমান অভিযোগের বিয়ষটি তদন্ত করেন। প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে আনিত অর্থ আত্মসাত ও অন্যন্য অভিযোগের সত্যতা প্রমানিত হওয়ায় সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার পাবনা জেলা শিক্ষা অফিসারকে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় আইননানুগ ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশও করেন। এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষক বিজয় দেবনাথের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ইউএনও সাহেব যা করেছেন ভালই করেছেন তবে আমি শেষ পর্যন্ত মোকাবেলা করে যাবো।

এ খবর সোশ্যাাল মিডিয়াসহ বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় প্রকাশিত হলে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের নজরে আসে। এরই প্রেক্ষিতে গতকাল সোমবার বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা দ্রুত এই অযোগ্য,অদক্ষ ও দুর্নীতিবাজ শিক্ষকের অপসারণের দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও স্মারকলিপি প্রদান করে। এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অঙ্গীকার দুর্নীতি মুক্ত শিক্ষাঙ্গণ বিনির্মাণের লক্ষে দুর্নীতিবাজ ও অর্থআত্মসাতকারী প্রধান শিক্ষককে দ্রুত অপসারণ করা না হলে বৃহত্তর আন্দোলনের কর্মসুচী ঘোষণা করতে বাধ্য হব বলে হুশিয়ারি দেয় শিক্ষার্থীরা