১৭, জুলাই, ২০১৮, মঙ্গলবার | | ৪ জ্বিলকদ ১৪৩৯

টিকেনি, টিকবেও না, হিটলারও টিকতে পারেনি;

আপডেট: মে ১১, ২০১৮

টিকেনি, টিকবেও না, হিটলারও টিকতে পারেনি;

বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী ড. আব্দুল মঈন খান বলেছেন, যারা গণতন্ত্রের কথা বলে বাকশাল প্রতিষ্ঠা করেছে তাদের মতো বিএনপি জনগণের সাথে প্রতারণা করতে পারবে না। বিএনপির জন্মই হয়েছে জনগণের অধিকার ও গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করার জন্য। আওয়ামী লীগ বা হিটলার বলেন, পৃথিবীর ইতিহাস বলে জুলুম করে কোন সরকার টিকেনি, টিকবেও না হিটলারও টিকতে পারেনি।

শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে তারেক জিয়া সাইবার ফোর্স ব্যানারে আয়োজিত “বন্দী গণতন্ত্র, বন্দি খালেদা জিয়ার ” মুক্তির দাবীতে প্রতিবাদ সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

মঈন খান বলেন, বিএনপি জনগণের মন বুঝে বিধায় মানুষ বেগম জিয়াকে ভোট দিয়ে তিনবার এদেশে প্রধানমন্ত্রী বানিয়েছে। জনগণকে অর্থনৈতিক মুক্তি দিতে আমরা এবারও বিএনপি বেগম খালেদা জিয়াকে নিয়ে কাজ করবো আমরা আবার বহুদলীয় পূর্ণ প্রতিষ্ঠা করবো। আমরা মনে করি শান্তিপূর্ণ, গণতান্ত্রিক ও নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলনে সফলতা আসবে আমরা নিয়মতান্ত্রিক পথে হাঁটবো বিএনপি গণতান্ত্রিক পথে হাঁটবে। বিএনপি কখনো লগি-বৈঠার আন্দোলন করে মানুষ মারতে পারে না।

সরকারে যে ভাবে বেগম জিয়াকে মিথ্যা মামলা দিয়ে কারারুদ্ধ করে রেখেছে এসময়ে কথা বলার সময় নেই। আপনারা কাজ করুন। সাইবার টির্ম কাজ করে যান।

অাওয়ামীল লীগের সাথে কারোই বেশিদিন সম্পর্ক টিকে না এটাই অাওয়ামী লীগ। তাদের সরকারের মন্ত্রী ইমরান সরকারের সাথে মেয়ের বিয়ে দিয়ে তা অাবার ডিভোর্স ও হয়ে গেছে।

তিনি বলেন, বিজয় সব সময় সম্মানের হয় না। মির জাফরের বিজয় সম্মানের ছিলো না। লেন্দুক দর্জির জয়ও সম্মানের ছিল না। এ ঘটনা গুলো থেকে অামাদের শিক্ষা নিতে হবে।

সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন বিএনপির চেয়ারপার্সন উপদেষ্টা অাবদুস সালাম খান, যুন্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন অালাল প্রমুখ।