১৮, জানুয়ারী, ২০১৯, শুক্রবার | | ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪০

আসামি ছাড়িয়ে নেয়ার চেষ্টা, সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৪ পুলিশ

আপডেট: জানুয়ারি ১৩, ২০১৯

আসামি ছাড়িয়ে নেয়ার চেষ্টা, সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৪ পুলিশ

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলায় আসামি ছাড়িয়ে নিতে পুলিশের সঙ্গে স্থানীয় ইউপি সদস্যের সমর্থকদের ধাওয়া ও সংঘর্ষে আশিকুর রহমান (২৫) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। এসময় আহত হয়েছেন চার পুলিশ সদস্যসহ অর্ধশতাধিক।

শনিবার রাতে বন্দরের মদনপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আশিকুর মদনপুরের চাঁনপুর এলাকার শহীদুল ইসলামের ছেলে। তিনি মদনপুরের প্যানডেক্স গার্মেন্টসের শ্রমিক ছিলেন।

স্থানীয়রা জানান, মদনপুর এলাকার ড্রিমল্যান্ড রেস্টুরেন্ট থেকে রাতে নূর নবী ও রিফাতকে আটক করে পুলিশ। তারা স্থানীয় খলিল মেম্বারের লোক হিসেবে পরিচিত।

এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে খলিল মেম্বারের লোকজন এসে পুলিশকে ঘিরে ফেলে ও আটক দুজনকে ছাড়িয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। পুলিশ তাদের বাধা দিলে তাদের সঙ্গে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ হয়। এসময় আহত হয়ে আশিকুরের মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ আলী, কনস্টেবল দেবাশীষ, মোহনসহ চারজন আহত হন।

এসময় পুলিশ পাল্টা অ্যাকশনে যায়। এতে স্থানীয় অন্তত ৪০ থেকে ৪৫ জন আহত হন। তাদের মধ্যে বাবু নামে এক যুবককে গুলিবিদ্ধ হয়। তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বন্দর থানার ওসি আজহারুল ইসলাম বলেন, পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে। তবে এ ঘটনায় কেউ নিহত হয়েছেন কি না তা তিনি বলতে পারেননি।