১৮, জানুয়ারী, ২০১৯, শুক্রবার | | ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪০

প্রাণ ফিরেছে গ্যালারিতে

আপডেট: জানুয়ারি ১১, ২০১৯

প্রাণ ফিরেছে গ্যালারিতে

দর্শকরাই তো মাঠের প্রাণ। প্রতিদ্বন্দ্বিতামুলক যে কোন ম্যাচে গ্যালারিতে যখন দর্শক উপস্থিতি থাকে না, ভক্তরা যখন মাঠ বিমুখ হন, গ্যালারি তখন কাঁদে। মুখ ফিরিয়ে নেয়া দর্শকদের প্রতি উদাত্ত আহবান জানায়-‘তোমরা এসো, আমাতে বস, আর আমাকে পূর্ণ কর!’ বিপিএলের গেল ৮ ম্যাচে ঠিক এভাবেই হয়তো নিরবে কেঁদেছে শের-ই-বাংলার গ্যালারি।

কিন্তু শুক্রবার (১১ জানুয়ারি) ভোজবাজির মতো বদলে গেল সেই চিত্র। গেল ৭ দিনের অবিরাম কান্না থামিয়ে আজ হেসেছে হোম অব ক্রিকেট। দর্শকদের সরব উপস্থিতিতে আজ কানায় কানায় পূর্ণ স্টেডিয়ামের ৭টি গ্যালারি।

ঢাকা ডায়নামাইটস ও রংপুর রাইডার্সের মধ্যকার ম্যাচ থাকায় সকাল থেকেই মাঠের বাইরে দু’ দলের সমর্থকদের ঢল নামে। দুপুর ২টায় খেলা শুরু হওয়ার সাথে সাথে পরিপূর্ণ হতে থাকে গ্যালারি।

শুনতে খারাপ শোনালেও এটাই সত্যি যে বিপিএল মাঠে গড়ানোর প্রায় সপ্তাহ খানেক পর এই প্রথম মনে হচ্ছে সত্যিকার অর্থেই বিপিএল হচ্ছে। একে তো সাপ্তাহিক ছুটি তার ওপর আবার মাশরাফি-সাকিবের লড়াই। কাজেই সুযোগটি বোধ হয় কেউই মিস করতে চাননি।

‘বিগ ম্যাচ’টির উত্তাপ সরাসরি গ্যালারি থেকে নিতে নিজ নিজ দলের জার্সি পরে নানান রঙে সেজে গ্যালারিতে এসেছে। প্রতিটি চার/ছয়ে আর উইকেট যাওয়ার সময় তাদের চিৎকার আর আনন্দ-উল্লাসে প্রকম্পিত মিরপুরের আকাশ-বাতাস। প্রত্যেক দলের সমর্থকই সাথে করে ঢোল-বাদ্য বাজনা নিয়ে এসেছে। ছোট বড় দলীয় পতাকাতেও ছেয়ে গেছে পুরো গ্যালারি।

দর্শকরাই মাঠের প্রাণ। দর্শকবিহীন ম্যাচ যে কোন হাইভোল্টেজ একটি ম্যাচকেও নিষ্প্রাণ করে তোলে। সেই দৃশ্য বদলে রংপুর-ঢাকার হাইভোল্টেজ ম্যাচের আমেজ পুরোটাই পাওয়া গেল।