শান্ত-লিটনের বিদায়ে চাপে টাইগাররা

১৩৯ রানের টার্গেটে ব্যাটিং করতে মাঠে আসেন দুই ওপেনিং ব্যাটসম্যান লিটন দাস এবং নাজমুল হাসান শান্ত। সাবধানী শুরু করেন এই দুই ওপেনার।

তবে গত ম্যাচের মতো এই ম্যাচেও মুজিবের বলে আউট হয়ে বিদায় নেন লিটন। দলীয় ৯ রানের মাথায় ব্যাক্তিগত ৪ রান নিয়ে মুজিবের বলে আউট হয়ে মাঠ ছাড়েন লিটন। লিটনের পর একই পথে হাঁটেন শান্ত। ব্যাক্তিগত ৫ রান নিয়ে নাভিনুল হকের বলে আউট হয়ে মাঠ ছাড়েন শান্ত। এই দুই ওপেনারের বিদায়ে চাপে পড়ে বাংলাদেশ।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বাংলদেশের সংগ্রহ ৩.৪ ওভারে ২ উইকেটে ১৪ রান।

এর আগে টসে হেরে ব্যাটিং করতে নেমে শুরুতেই চাপে থাকে আফগানিস্তান। শফিউল-সাইফুদ্দিনের নিয়ন্ত্রীত বোলিংয়ে মারমূখী হতে পারেননি আফগান ওপেনাররা। যদিও শফিউলের বলে রাহমানুল্লার সহজ ক্যাচ মিস করেন মাহমুদুল্লাহ। ক্যাচ মিসের পর কিছুটা আক্রমণাক্তক হয়ে উঠে দুই আফগান ওপেনার।

শেষ পর্যন্ত এই দুজনের জুটি ভাঙেন আফিফ। নিজের প্রথম ওভারেই কোনো রান না দিয়ে তুলে নেন দুই উইকেট। দলীয় ৭৫ রানের মাথায় একে একে বিদায় নেন হাজরাতুল্লা এবং আসগার আফগান। ৪৭ রান করে হাজরাতুল্লা এবং ০ রানে আউট হন আসগার আফগান। দুজনকেই আউট করেন আফিফ।

আফিফের পর পরের ওভারে বোলিংয়ে আসেন মুস্তাফিজ। এসেই উইকেট তুলে নেন মুস্তাফিজ। দলীয় ৮০ রানের মাথায় ব্যাক্তিগত ২৯ রান নিয়ে মুস্তাফিজের বলে আউট হন রাহামানুল্লাহ ।

রাহমানুল্লার বিদায়ের পর মাঠে আসেন গত ম্যাচে বিদ্ধ্বংসি ব্যাটিং করা করা আফগান অলরাউন্ডার নবি। তবে নবি কে আজকে বিদ্ধ্বংসি হতে দেননি সাকিব। দলীয় ৮৮ রানের মাথায় ব্যাক্তিগত ৪ রান নিয়ে সাকিবের বলে আউট হন নবি। নবীকে ফিরিয়ে দলকে স্বস্তি এনে দেন কাপ্তান সাকিব।

নবীর উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে আফগানিস্তান। যার ফলে কিছুটা স্বস্তি ফিরে আসে টাইগার শিবিরে। সাকিবের পর আবারো আঘাত হানেন আফিফ। যদিও এইবার রান আউট। দলীয় ৯৬ রানের মাথায় ব্যাক্তিগত ১ রান নিয়ে আফিফের বলে মাহমুদুল্লাহর হাতে রান আউটের শিকার হয়ে মাঠ ছাড়েন গুলবাদিন নাইব।

গুলবাদিন নাইবের বিদায়ের পর আঘাত হানেন ফেনী এক্সপ্রেস সাইফুদ্দিন। দলীয় ১০৯ রানের মাথায় ব্যাক্তিগত ১৪ রান নিয়ে সাইফুদ্দিনের বলে আউট হন নাজিবুল্লাহ জাদরান। যার ফলে কোনঠাসা হয়ে পড়ে আফগানিস্তান।

সাইফুদ্দিনের পর আঘাত হানেন আরেক পেসার শফিউল। দলীয় ১১৪ রানের মাথায় ব্যাক্তিগত ৩ রান নিয়ে শফিউলের বলে আউট হন করিম জানাত। যার ফলে আফগানিস্তানের স্কোর দাঁড়ায় ৭ উইকেটে ১১৪ রান।

শেষ পর্যন্ত আফগানিস্তানের সংগ্রহ ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৩৮ রান। যার ফলে বাংলাদেশের সামনে টার্গেট দাঁড়ায় ১৩৯ রান। বাংলাদেশের পক্ষ্য সাকিব,শফিউল,সাইফুদ্দিন,মুস্তাফিজ নেন ১ টি উইকেট করে। আফিফ নেন ২ উইকেট।

এর আগে টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন টাইগার দলপতি সাকিব। গত ম্যাচের চমক আমিনুল খেলেছেন না আজকের ম্যাচে। তার জায়গায় খেলছেন সাব্বির রহমান।

বাংলাদেশ একাদশ:

সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), নাজমুল হোসেন শান্ত, লিটন দাস, মুশফিকুর রহীম (উইকেটরক্ষক), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মোসাদ্দেক হোসেন, আফিফ হোসেন, সাব্বির রহমান,মোহাম্মদ সাইফুদ্দীন, শফিউল ইসলাম, মোস্তাফিজুর রহমান।

বার্তাবাজার/কেএ

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর