বেনাপোল পৌর গেট মাদকসেবীদের নিরাপদ আড্ডাস্থল

যশোর বেনাপোলের প্রবেশদ্বারে পৌরসভার অর্থায়নে নির্মিত এশিয়া মহাদেশের বৃহত্তম পৌর গেইট এলাকাটি এখন মাদকসেবীদের নিরাপদ পছন্দের আড্ডাস্থলে পরিণত হয়েছে।বেনাপোল বাজার হতে ৩কিলোমিটার দূরে ফাঁকা জায়গায় নির্মিত পৌর গেইট এলাকাটি এখন বেনাপোল পৌরবাসীর একমাত্র বিনোদন কেন্দ্রস্থল হয়ে ওঠায় সরকারী ছুটির দিনগুলোতে যশোর জেলার বিভিন্ন প্রান্ত হতে হাজার হাজার দর্শনার্থী এসে ভিড় জমায়।

খোলা আকাশের নিচে কয়েকটি ফুচকা,বাদাম ও চটপটি বিক্রেতা পসরা সাজিয়ে বসে আগত দর্শনার্থীদের মুখোরোচক খাবার সরবারহ করে।কাবাব ঘর, আইসক্রিম,টি স্টল সহ ৪/৫টি পাঁকা ফাস্টফুডের দোকান রয়েছে পুরো গেইট এলাকা জুড়ে। প্রশাসনের কড়া নজরদ্বারী ছাড়াই ফাঁকা রাস্তার পাশে বসেই দর্শনার্থীরা গল্প-গুজব ও আড্ডায় সময় কাটান মধ্যরাত অবধি।আর এ সুযোগে ভ্রাম্যমান মাদক ব্যাবসায়ীরা অনায়াসে যুব সমাজ ধ্বংসকারী মাদক দ্রব্য যেমন- ইয়াবা,গাজাঁ,ফেনসিডিল ও মদ সরবারহ করে গেইট এলাকায় আগত উঠতি বয়সী যুবক-তরুনদের কাছে বিক্রি করছে।তারা অনায়াসে নির্ভয়ে বসেই মাদক দ্রব্য প্রকাশ্যে গ্রহন করে নেশা মিটিয়ে চলে যান।

স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের কোন তৎপরতাই তেমন দেখা যায়না পৌর গেইট এলাকায়।মাসে দু- একবার নামমাত্র হঠাৎ পুলিশের টহল গাড়ী দেখা যায় বলে জানান স্থানীয় দোকানীরা।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পৌর গেইট এলাকার এক মাদক বিক্রেতা “বার্তা বাজার” নিউজ পোর্টালের যশোর জেলা প্রতিনিধি মোঃ লোকমান হোসেন কে বলেন,যশোর,ঝিকরগাছা,নাভারন সহ বিভিন্ন স্থান হতে মোটরবাইক নিয়ে বন্ধু-বান্ধব সহ শুক্র-শনিবার মাদক সেবীদের গ্রুপ আসে গেইট এলাকায়।তারা আগে থেকে মোবাইলে মাদকের অর্ডার করে ও বিকাশে বায়না করে থাকেন। সে অনুযায়ী গেট এলাকায় আসলে সহসায় মেলে মাদক।গেইট এলাকার অদূরে রাস্তার পাশে গড়ে ওঠা ৩/৪ টি ঝুপড়ি চায়ের দোকানেও চলে মাদকের সরবারহ।সরেজমিনে গিয়ে এমন তথ্যের সত্যতা পাওয়া যায়।বখাটে ও উচ্শৃঙ্খল বহিরাগত মাদকসেবী যুবকদের অশ্লীল আচরনে অতিষ্ঠ বেনাপোল পৌর এলাকার স্থানীয় বিনোদন পিপাসু দর্শনার্থীরা। এলাকার পরিবেশ সুষ্ঠু রাখতে ও যুব সমাজ রক্ষায় তারা দ্রুত বিষয়টি নিরসনে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

বার্তাবাজার/ডব্লিওএস

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর