১৮, অক্টোবর, ২০১৮, বৃহস্পতিবার | | ৭ সফর ১৪৪০

মস্তিষ্ক সচল রাখতে যা করবেন

আপডেট: অক্টোবর ১৩, ২০১৮

মস্তিষ্ক সচল রাখতে যা করবেন

মস্তিষ্ক হল কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রের পুরোভাগ, যা মস্তকের অভ্যন্তরে অবস্থিত এবং দেহের প্রধান নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্র। ভ্রুণ অবস্থায় সুষুম্নাকান্ডের অগ্রবর্তী দন্ডাকার অংশ ভাঁজ হয়ে পর পর ৩টি বিষমাকৃতির স্ফীতি তৈরী করে। স্ফীতি ৩টি মিলেই গঠিত হয় মস্তিষ্ক। প্রাপ্তবয়স্ক লোকের মস্তিষ্কের আয়তন ১৫০০ ঘন সেন্টিমিটার, গড় ওজন ১.৩৬ কেজি এবং এতে ১০ বিলিয়ন নিউরোন থাকে। মস্তিষ্ক এলোমেলো হয়ে গেলে পুরো জীবনটাই প্রায় মূল্যহীন হয়ে পড়ে। তাই গবেষকদের দেয়া মস্তিষ্ককে সচল রাখার কিছু সহজ উপায় তুলে ধরা হলো আজকের প্রতিবেদনে।

জোরে জোরে হাসুন: দিনে অন্তত একবার তিরিশ মিনিট প্রাণ খুলে জোরে জোরে হাসুন। এতে কিছু শেখা ও মনে রাখার ক্ষমতা শতকরা ৩৮ ভাগ বেড়ে যেতে পারে। এই তথ্যটি অ্যামেরিকা ক্যালিফোর্নিয়ার লোমা লিন্ডা বিশ্ববিদ্যালয়ের করা এক সমীক্ষা থেকে জানা গেছে।

নেচে নেচে তরুণ থাকুন: সাম্বা, সালসা বা টাঙ্গো- যা-ই হোক না কেন, তা ডিমেনশিয়ার ঝুঁকি কমায় শতকরা ৭৬ ভাগ। নিউ ইয়র্কের আলবার্ট আইনস্টাইন কলেজের করা সমীক্ষা জানাচ্ছে তথ্যটি। বলা হয়েছে, নাচের মাধ্যমে মস্তিষ্ক অক্সিজেন এবং শক্তি পায়।

প্রতিদিনের নিয়ম ভেঙ্গে ফেলুন: প্রতিদিন একই নিয়মে না চলে মাঝেমধ্যে একটু এদিক-সেদিক করতে পারেন। হঠাৎ করে একদিন অন্য চা বা কফি পান করলেন, কিংবা ডান হাতের বদলে বাঁ হাত দিয়ে দাঁত ব্রাশ করলেন। অর্থাৎ একটু অনিয়ম করলেন। এতে করে মস্তিষ্ক সজাগ থাকে।

মাছ খান: অ্যামেরিকার পেনসিলভেনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের করা এক সমীক্ষা জানায়, সপ্তাহে অন্তত একদিন হেরিং, কাবেলিয়াও বা স্যামন ফিস খেলে মানুষের আইকিউ বেড়ে যায় শতকরা পাঁচ ভাগ। তাছাড়া আখরোট মস্তিষ্কের স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী।