২১, অক্টোবর, ২০১৮, রোববার | | ১০ সফর ১৪৪০

স্ত্রীর গলাকাটা ও স্বামীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

আপডেট: অক্টোবর ১০, ২০১৮

স্ত্রীর গলাকাটা ও স্বামীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

কুমিল্লার লাকসামে বন্ধ রুম থেকে স্ত্রীর গলাকাটা এবং স্বামীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার (১০ অক্টোবর) সকালে উপজেলার কান্দিরপাড় ইউনিয়নের সালেপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ওই দম্পতি হলেন সালেপুর গ্রামের মুন্সী হেদায়েত উল্লাহর ছেলে ছফিউল্লাহ (৪০) এবং তার স্ত্রী রাবেয়া (২৮)। নিহত দম্পতির দুই মেয়ে এক ছেলে রয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, সকাল ৮টার দিকে বাড়ির লোকজন ছফি উল্লাহর ঘর থেকে দরজার নিচ দিয়ে বাইরে রক্ত গড়িয়ে পড়তে দেখতে পান। এ সময় ঘরের ভেতর ঢুকে দেখা যায় ঘরের সিলিংয়ের সঙ্গে ছফি উল্লাহর ঝুলন্ত দেহ এবং মেঝেতে তার স্ত্রী রাবেয়া বেগমের গলাকাটা লাশ। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। এ সংবাদ লেখার সময় পর্যন্তপুলিশ ঘটনাস্থলে ছিল।

এলাকাবাসীর ধারণা, ছফি উল্লাহ তার স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যার পর নিজে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

কান্দিরপাড় ইউনিয়নের স্থানীয় মেম্বার আরিফুল ইসলাম জানান, নিহত দম্পতির মধ্যে দীর্ঘদিন পারিবারিক অশান্তিও দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। মঙ্গলবার গভীর রাতে কোন এক সময় পারিবারিক দ্বন্দ্বে প্রথমে স্ত্রীকে জবাই করে হত্যার পর স্বামী নিজেও গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

লাকসাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনোজ কুমার সাহা জানান, বসত ঘরের ভিতরে বন্ধ রুম থেকে দুটি লাশ উদ্ধার করা হয়। এ সময় স্ত্রীর গলাকাটা এবং স্বামীর ঝুলন্ত লাশ পাওয়া যায়। ঘটনার সঠিক কারণ এখনো জানা যায়নি। লাশ ময়না তদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।