২৩, অক্টোবর, ২০১৮, মঙ্গলবার | | ১২ সফর ১৪৪০

গানে ইসলাম ধর্ম অবমাননাকর মন্তব্য, উত্তপ্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

আপডেট: অক্টোবর ৭, ২০১৮

গানে ইসলাম ধর্ম অবমাননাকর মন্তব্য, উত্তপ্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জাতীয় উন্নয়ন মেলার অনুষ্ঠানে গান গাইতে এসে তোপের মুখে পড়েন বাউল শিল্পী সামছেল হক চিশতী।

শনিবার (৬ অক্টোবর) রাত ৯ টার দিকে জেলা শহরের নিয়াজ মুহম্মদ স্টেডিয়ামে জেলা প্রশাসনের উন্নয়ন মেলায় গান গাইতে এসে তোপের মুখে পড়েন তিনি। তার গানে ইসলাম ধর্মকে নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য করার প্রতিবাদে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল জেলা শহর। তবে এখন পরিস্থিতি শান্ত।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত একাধিক ব্যক্তি জানান, উন্নয়ন মেলার সমাপনী দিনে বাউল সংগীতের আয়োজন করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসন। এতে গান পরিবেশন করেন ‘যদি থাকে নসিবে আপনে আপনে আসিবে’ খ্যাত বাউল শিল্পী সামছেল হক চিশতী। গানের মাঝে এশার নামাজের বিরতিতে তিনি ইসলাম ধর্ম নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করেন। এ খবর জামিয়া ইসলামিয়া ইউনুছিয়া মাদরাসার ছাত্ররা জানার পর শহরের টি এ রোডে বিক্ষোভ করেন। এক পর্যায়ে মেলা স্থলে অবরুদ্ধ করে রাখা হয় সামছেল হক চিশতীকে। পরে পুলিশ গিয়ে উদ্ধার করে তাকে থানা হেফাজতে নিয়ে আসে। এ সময় ভাংচুর করা হয় তার প্রাইভেটকার। বিক্ষুব্ধ মাদ্রাসা ছাত্ররা ভাংচুর করেন উন্নয়ন মেলার কয়েকটি স্টল, মাইক ও স্টেজ।

পরে সামছেল হক চিশতী ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানায় সাংবাদিকদের বলেন, ‘মাগো আমি স্কুলেতে আর পড়বো না হাট্টিমা টিম টিম, মাদ্রাসাতে পড়বো গিয়ে আলিফ-লাম-মীম’ এই বাক্যের সঙ্গে মিল রেখে আমি গান গাইছিলাম। তবে আমি অসুস্থ থাকায় গানের কথা এলোমেলো হয়ে গেছে। আমি কী বলেছি মনে করতে পারছি না। এই অনাকাঙ্খিত ভুলের জন্য আমি ক্ষমা প্রার্থী।’

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন খান বলেন, একটি গান গাওয়ার বিষয় নিয়ে মাদ্রাসা ছাত্ররা একটু উত্তেজিত হয়। বর্তমানে শহরের অবস্থা ভাল। আমরা ছাত্রদের বুঝিয়ে উত্তেজনা নিরসনের চেষ্টা করেছি। আশা করছি, সব কিছু শান্তিপূর্ণভাবে সমাধান হবে।

রাতে জেলা প্রশাসক রেজওয়ানুর রহমান, পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন খান সদর মডেল থানায় বৈঠকে বসেন জামিয়া ইসলামিয়া ইউনুছিয়া মাদরাসার সিনিয়র আলেমদের নিয়ে। পরে রাত সাড়ে ১২টার দিকে সামছেল হক চিশতী বৈঠকে নিজের ভুল স্বীকার করেন এবং ভবিষ্যতে এমন হবে না বলে অঙ্গীকার করেন। এ সময় জেলা প্রশাসন ও পুলিশের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।