১৮, অক্টোবর, ২০১৮, বৃহস্পতিবার | | ৭ সফর ১৪৪০

একতরফা নির্বাচনের আলামত দেখছেন বাম নেতারা

আপডেট: অক্টোবর ৫, ২০১৮

একতরফা নির্বাচনের আলামত দেখছেন বাম নেতারা

চট্টগ্রামে এক গণসমাবেশে বাম গণতান্ত্রিক জোটের নেতারা বলেছেন, আমরা বর্তমান সরকারের দুঃশাসন চাই না। সেই সঙ্গে বর্তমান দুঃশাসনের বদলে আরও নষ্ট গণবিরোধী অপশাসন চাই না। এসময় বাম নেতারা ‘একতরফা নির্বাচনের আলামত দেখা যাচ্ছে’ বলেও মন্তব্য করেন।

শুক্রবার (৫ অক্টোবর) চট্টগ্রামের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে আয়োজিত সমাবেশে তারা এসব কথা বলেন।

সমাবেশে বাম নেতারা বলেন, ‘বর্তমান সরকারের লুটপাট, দুর্নীতি আর দুঃশাসনে মানুষ আজ দিশেহারা। সবখানে চলছে নগ্ন দলীয়করণ। জানমালের নিরাপত্তা নেই। জনজীবন চরমভাবে বিপর্যস্ত।’

নির্বাচনের নামে তালবাহানা চলছে উল্লেখ করে বক্তারা আরও বলেন, ‘জনগণের ভোটাধিকার শুধু নয়, সব গণতান্ত্রিক অধিকার এই কর্তৃত্ববাদী সরকারের হাতে জিম্মি হয়ে আছে। একতরফা নির্বাচনের আলামত দেখা যাচ্ছে। নির্বাচন কমিশনকে পরিণত করা হয়েছে এক মেরুদণ্ডহীন প্রতিষ্ঠানে।’

বাম নেতারা আরও বলেন, ‘আমরা বিদ্যমান দুঃশাসনের অবসান চাই। তবে বিদ্যমান দুঃশাসনের পরিবর্তে আরও নষ্ট গণবিরোধী অপশাসন প্রত্যাশা করি না। আমরা চাই, জোট-মহাজোটের বাইরে মুক্তিযুদ্ধের প্রগতির ধারার একটি বিকল্প রাজনৈতিক ব্যবস্থা। সেজন্য দ্বি-দলীয় লুটেরাভিত্তিক অপরাজনীতির অবসান ঘটিয়ে বাম গণতান্ত্রিক শক্তির উত্থান ঘটাতে হবে।’

বাম গণতান্ত্রিক জোট, চট্টগ্রামের সমন্বয়ক অধ্যাপক অশোক সাহা কেন্দ্রঘোষিত এই গণসমাবেশে সভাপতিত্ব করেন। এতে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় সহ-সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ জহির চন্দন, বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রাজেকুজ্জামান রতন, গণসংহতির প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি, বিপ্লবী ওয়ার্কাস পার্টির প্রেসিডিয়ায়াম সদস্য মোখলেসুর রহমান, বাসদ (মার্ক্সবাদী) কেন্দ্রীয় সদস্য মানস নন্দী, সিপিবি চট্টগ্রামের নেতা মৃণাল চৌধুরী, বাসদ চট্টগ্রামের মহিনউদ্দিন, বাসদ (মার্ক্সবাদী) অপু দাশ গুপ্ত, গণসংহতি আন্দলনের হাসান মারুফ রুমি।