২২, অক্টোবর, ২০১৮, সোমবার | | ১১ সফর ১৪৪০

জাদেজার সেঞ্চুরি, রানপাহাড়ে ভারত….

আপডেট: অক্টোবর ৫, ২০১৮

জাদেজার  সেঞ্চুরি, রানপাহাড়ে ভারত….

স্যার ডন ব্র্যাডম্যানের পর দ্রুততম সময়ে ভারতীয় অধিনায়ক কোহলি ২৪তম সেঞ্চুরি তুলে নেওয়ার পর সেঞ্চুরি পেয়েছেন রবীন্দ্র জাদেজাও। অভিষিক্ত হওয়ার ৬ বছর পর জাদেজার প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি তুলে নেওয়ার পর স্কোর বোর্ডে ৬৪৯ রান নিয়ে ইনিংস ডিক্লেয়ার ঘোষণা করেন কোহলি।

শুক্রবার (৫ অক্টোবর) রাজকোটে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় দিনেই ক্যারিয়ারের ২৪তম টেস্ট সেঞ্চুরি তুলে নেন বিরাট কোহলি। সঙ্গে একটা রেকর্ডও গড়ে ফেলেন। স্যার ডন ব্র্যাডম্যানের পর দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে দ্রুততম ২৪তম টেস্ট সেঞ্চুরির নজির গড়েন ভারতের এই অধিনায়ক।

স্যার ডন ব্র্যাডম্যান মাত্র ৬৬ ইনিংস খেলে ২৪তম টেস্ট সেঞ্চুরি করেছিলেন। তারপর ১২৩ ইনিংস খেলে সেই রেকর্ডে ভাগ বসান বিরাট কোহলি। তারই স্বদেশি কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকারকে ২৪তম টেস্ট শতকের জন্য খেলতে হয়েছিল ১২৫ ইনিংস। ভারতের আরেক গ্রেট সুনীল গাভাস্কারকে সে জন্য খেলতে হয়েছিল ১২৮ ইনিংস।

দলীয় ৫৩৪ রানে ষষ্ঠ উইকেট হিসেবে শেরমান লুইসের বলে দেবেন্দ্র বিশুর হাতে ক্যাচ তুলে নিয়ে ব্যক্তিগত ১৩৯ রানে বিদায় নেন কোহলি। তবে তার বিদায়েও রানের চাকা সচল রাখেন রবীন্দ্র জাদেজা। ওয়ানডে স্টাইলে ব্যাটিং করে ১৩২ বলে ৫ চার ও ৫ ছক্কায় টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি তুলে নেন এই অলরাউন্ডার।

দুই দিনে প্রায় ৪ সেশন ব্যাটিং করে ৩ সেঞ্চুরি আর দুই সেঞ্চুরি ঘেঁষা ইনিংস মিলিয়ে ১৪৯.৫ ওভার পর্যন্ত ব্যাট করেন ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা। আগের দিন সেঞ্চুরি হাঁকান অভিষিক্ত পৃথ্বী। ভারতীয় ক্রিকেটারদের মধ্যে সবচেয়ে কম বয়সী সেঞ্চুরিয়ান পৃথ্বী শ। এছাড়া কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকারের পর তিনি দ্বিতীয় ভারতীয় ক্রিকেটার যিনি অভিষেক ম্যাচেই সেঞ্চুরি হাঁকালেন।

বিশ্ব ক্রিকেটে চতুর্থ ক্রিকেটার হিসেবে সবচেয়ে কম বয়সে সেঞ্চুরি হাঁকান পৃথ্বী। এছাড়া সব চেয়ে কম বল খেলে অভিষেকে সেঞ্চুরি করাদের মধ্যে তিনি দ্বিতীয় নম্বরে আছেন। ৯৮ বলে ১০০ করা শ শেষ পর্যন্ত ১৩৪ রানে ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্পিনার দেবেন্দ্র বিশুর বলে রিটার্ন ক্যাচ দিয়ে ফেরেন প্রথম টেস্টেই নজর কাড়া ব্যাটিং উপহার দেওয়া এই ব্যাটসম্যান।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে এই ম্যাচের সবচেয়ে সফল বোলার স্পিনার দেবেন্দ্র বিশু। একাই ৪ উইকেট তুলে নিলেও রান খরচ করেছেন ২১৭, যা টেস্টের এক ইনিংসে সর্বোচ্চ রান খরচের দিক থেকে ১৮তম। ২ উইকেট পেয়েছেন লুইস, ১টি করে উইকেট পেয়েছেন গ্যাব্রিয়েল, কিমো পল, চেজ ও ব্যাথওয়েট।

ইনিংস ডিক্লেয়ার ঘোষণার পর ব্যাটিং করতে নেমে ভারতের বোলিং তোপে শুরুতে ২১ রান তুলতেই ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৫ রান খরচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের দুই ওপেনারকে তুলে নিয়েছেন পেসার মোহাম্মদ শামি। আর শাই হোপের উইকেটটি স্পিনার অশ্বিনের।