১৫, অক্টোবর, ২০১৮, সোমবার | | ৪ সফর ১৪৪০

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সাংবাদিকতা বাধাগ্রস্ত হবে না

আপডেট: অক্টোবর ৪, ২০১৮

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সাংবাদিকতা বাধাগ্রস্ত হবে না

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন- ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন যেভাবে করা হয়েছে, তাতে আমি আপনাদের আশ্বস্ত করতে পারি, বাক-স্বাধীনতা ও সাংবাদিকতার স্বাধীনতায় কোনও বাধা সৃষ্টি করবে না।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পঞ্চগড়ের চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ভবনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। গণপূর্ত বিভাগের আওতায় ৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের নবনির্মিত ভবনটি নির্মাণ করা হয়।
মন্ত্রী বলেন, এই আইনে প্যানেল কোডের মধ্যে যেসব অপরাধের কথা যেমন- মানহানি, ফৌজদারি অপরাধ যদি ডিজিটাল ডিভাইসের মাধ্যমে করা হয়, তাহলে সেটা ডিজিটাল আইনে পড়বে। সুতরাং এমন কোনও বিধান নেই যে, এই আইন নতুন করে সাংবাদিকতা ও অনুসন্ধানী সাংবাদিকতায় বাধা হয়ে দাঁড়াবে।
তিনি বলেন, আমি আপনাদের এইটুকু আশ্বস্ত করতে পারি যে, এই আইনটি অপব্যবহার করতে গেলেও এর মধ্যে কিছু রক্ষাকবচ আছে এজন্য এর অপব্যবহার করা সহজ নয়।

মন্ত্রী বলেন- আওয়ামী লীগ সরকার এই ডিজিটাল আইনের অপব্যবহার করবে না এবং এর পরেও যেন এই আইনের কেউ অপব্যবহার করতে না পারে, সে ব্যাপারে রক্ষাকবচ এখানে দেওয়া আছে।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, সংবিধানে যে সময়ে নির্বাচন হওয়ার বাধ্যবাধকতা আছে ঠিক সেই বাধ্যবাধকতা অনুযায়ী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আমরা চাই সকলেই এই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে। আমরা স্বাধীনতায় বিশ্বাস করি। এজন্য এ বিষয়টি স্বাধীনভাবে বিবেচিত হওয়াই উচিত। কোন দল নির্বাচনে আসবে আর কোন দল আসবে না, এটা তারা স্বাধীনভাবেই সিদ্ধান্ত নেবে। তবে আমরা সকলকেই নির্বাচনে আসার আমন্ত্রণ জানাই।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন পঞ্চগড় জেলা ও দায়রা জজ আবু মনসুর মো. জিয়াউল হক। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পঞ্চগড়-২ আসনের সাংসদ অ্যাডভোকেট নুরুল ইসলাম সুজন, পঞ্চগড়-১ আসনের সাংসদ নাজমুল হক প্রধান, সংরক্ষতি নারী সাংসদ সেলিনা জাহান লিটা, আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হক, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম, পুলিশ সুপার মো. গিয়াস উদ্দীন আহমেদ, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি মির্জা নাজমুল ইসলাম কাজল, সাধারণ সম্পাদক মজনুর রহমান প্রমুখ।