আজ সোমবার বিকাল ৩:৩৬, ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং, ১০ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা মুহাররম, ১৪৩৯ হিজরী

সাকিবের মনেপ্রাণে আছে যে বিশ্বাসটা

নিউজ ডেস্ক | বার্তা বাজার .কম
আপডেট : মার্চ ১০, ২০১৭ , ৮:৫৩ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : খেলাধুলা
পোস্টটি শেয়ার করুন

সাকিবের মনেপ্রাণে একটা বিশ্বাস আছে।  চতুর্থদিন শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসে দেশি-বিদেশি সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ওই বিশ্বাসের রেণুটা বারবার ছড়াতে চাইলেন, ‘শেষদিনের প্রথম ঘণ্টা গুরুত্বপূর্ণ।  আমাদের টিকে থাকতে হবে।  আমি মনেপ্রাণে বিশ্বাস করি জয় না হোক ড্র করা সম্ভব। ’

চতুর্থদিন উইকেটে বল কিছুটা ঘুরেছে।  শেষদিন এই ঘূর্ণিটা বাড়তে পারে।  জয়ের জন্য এখনো বাংলাদেশের করতে হবে ৩৯০।  হাতে দশ উইকেট।  আর একটা দিন।

গলে কোনো দল শেষ ইনিংসে ৩০০ রানের বেশি করতে পারেনি।  এমন পরিসংখ্যানও সাকিবকে ভয় ধরাতে পারছে না, ‘পঞ্চমদিনে উইকেট বোলারদের পক্ষে আচরণ করতেও পারে।  কালকে সেটা একটু বাড়তে পারে।  কিন্তু আমার কাছে মনে হয় আমাদের ব্যাটসম্যানরা দক্ষ।  যেহেতু আমাদের দশ উইকেট হাতে আছে, আমরা মনেপ্রাণে বিশ্বাস করি কমপক্ষে জয় না হোক ড্র করা সম্ভব। ’

শ্রীলঙ্কার বিশেষ কোনো বোলারকে নিয়ে বাংলাদেশ চিন্তা করবে না বলেও মত তার, ‘সবাইকে খুব সচেতনতার সঙ্গে খেলতে হবে।  বলতে গেলে আমরা একটু পিছিয়ে আছি।  তাই বেশি সতর্ক থাকতে হবে।  ওদের সব বোলারই ভালো।  প্রথম ইনিংসে দেখেছি সবাই ভালো জায়গায় বল ফেলে।  সুতরাং আমাদের খুব ভালো ব্যাটিং করতে হবে। ’

এদিন মিরাজের বলে দিমুথ করুনারত্নে শর্ট কাভারে ক্যাচ দিয়েছিলেন।  সাকিব সেটা ধরতে ব্যর্থ হন।  প্রসঙ্গটি উঠতেই সাকিবের জবাব, ‘ক্যাচ ড্রপ…আসলে এটা হয়ে যায়।  কেউ এটা ইচ্ছাকৃতভাবে করে না।  বিষয়টি আমরা বুঝতে পারি।  এগুলো নিয়ে খুব বেশি চিন্তার কিছু নেই।  একই সঙ্গে আমরা এগুলো নিয়ে কাজও করি।  যাতে করে এই জায়গাগুলোতে উন্নতি করতে পারি। ’

পঞ্চমদিন প্রথম সেশনে নিজেদের পরিকল্পনা নিয়ে সাকিব বলেন, ‘সৌম্য-তামিম যতক্ষণ পারুক ব্যাটিং করুক।  এটাই পুরো টিমের চাওয়া।  নতুন কিছু করার দরকার নেই।  যার যে গেমপ্ল্যান সেটা করতে পারলেই হবে।  এরকম একটা অবস্থায় সবাইকে আসলে হার্ডওয়ার্ক করতে হবে। ’

উইকেট প্রথম দিন থেকেই ব্যাটসম্যানদের হয়ে কথা বলছে।  বাংলাদেশি বোলাররা কেউই তেমন প্রভাব বিস্তার করতে পারেননি।  এমন উইকেটে সাকিব কাউকে দোষ দিতে চান না, ‘বোলাররা সবাই এই উইকেটে ভালোই করেছে।  সবার দিক থেকে বিশেষ একটা চেষ্টা ছিল।  আমার মনে হয় টিম-ম্যানেজমেন্টও সেটার প্রশংসা করেছে। ’

‘মোস্তাফিজের ফেরা আমাদের জন্য বড় ব্যাপার।  মিরাজও সবসময় ভালো বোলিং করেছে।  অভিষেক থেকে এখন পর্যন্ত আমার মনে হয়নি কখনো ও খুব একটা খারাপ করেছে।  শুধু ওরা দুজনই নয়।  তাসকিন এবং শুভাশিসও ভালো করেছে। ’ মন্তব্য সাকিবের।