১৯, অক্টোবর, ২০১৮, শুক্রবার | | ৮ সফর ১৪৪০

মাস্ট উইন ম্যাচ ম্যাশদের জন্য

আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৮

মাস্ট উইন ম্যাচ  ম্যাশদের জন্য

চার দিনে তিন ম্যাচ। লাগাতার ম্যাচে একটু জিরানোর সুযোগ নেই। ভারতের সঙ্গে হেরে সেই বিশ্রাম নেয়ার সুযোগ কই? তার মধ্যেই নেমে যেতে হচ্ছে ২২ গজের লড়াইয়ে। এশিয়া কাপে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ। টুর্নামেন্টে টিকে থাকার ম্যাচ।

গ্রুপ পর্বে আফগানদের কাছে হেরে এবার সুপার ফোরে দ্বিতীয় ম্যাচে মুখোমুখি দু‘দল। এশিয়া কাপে সবশেষ দুই দেখায় জিতেছে আফগানরা। এবারও টানা হারের মধ্যে থাকা বাংলাদেশের সামনে তাই বাঁচা-মরার লড়াই। আজ আবুধাবিতে বিকেল সাড়ে পাঁচটায় মাশরাফি বাহিনী চ্যালেঞ্জ জানাতেই পারেন আফগানদের।

তবে, পুরো টুর্নামেন্টজুড়ে প্রথম ম্যাচ বাদ দিলে সেভাবে টিকে লড়াই করার মানসিকতা খুঁজে পাওয়া যায়নি টাইগারদের। তামিমের ইনজুরি, মুশফিকের ব্যথানাশক ওষুধ নিয়ে খেলা, ওপেনিংয়ে সমস্যা। নুতন করে যোগ হয়েছে টিম ম্যানেজমেন্টের সাথে মাশরাফির ব্যবধান। অধিনায়ককে না জানিয়েই ইমরুল এবং সৌম্যকে ডেকে পাঠানো। এর মধ্যেও ভিন্ন স্বপ্ন দেখেন মাশরাফি, ‘টিকে থাকা সম্ভব’।

টাইগার শিবিরে এই যখন অবস্থা সেখানে আফগান শিবিরে মনোবল আর আত্মবিশ্বাস অটুট ও চাঙা। রশিদ-নবীরা যেন ফাইনালে যেতেই খেলতে এসেছে। বাংলাদেশকে পাত্তা না দিয়ে জয়। পরের ম্যাচে পাকিস্তানের সঙ্গে লড়াকু হার। আত্মবিশ্বাস যোগাবে নি:সন্দেহে।

অন্যদিকে লঙ্কানদের সঙ্গে ১৩৭ রানের ওই জয় ছাড়া বলতে গেলে হতাশেই হয়েছে টাইগাররা। প্রথম ম্যাচের জয় যেন ভুলেই গিয়েছে বাংলার ক্রিকেটাররা। টানা দুই হারে আত্মবিশ্বাসে টান পড়ার জোগাড় হয়েছে, তার ওপর শিরোপা লড়াইয়ে টিকে থাকতে পরের দুই ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই। আফগানিস্তান ও পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের অগ্নিপরীক্ষাই বটে।

আগের দুই ম্যাচের মতো ভারতের বিপক্ষেও হাসেনি লিটন কুমারের ব্যাট। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ০, আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৬ রান করা লিটন এ দিন ফিরেছেন ৭ রানে। তামিমের ইনজুরিতে দলে সুযোগ পাওয়া নাজমুল হোসেন শান্তও পারেননি আস্থার প্রতিদান দিতে। ফিরেছেন ৭ রানে। মোহাম্মদ মিথুনও পারেননি ঢাল হতে। এমন ব্যাটিং লাইন আপ নিয়েও মাশরাফি বললেন, ‘আমার কাছে মনে হয় এখনো সম্ভব। হতাশ হওয়ার কিছু নেই। ব্যাটিং বিপর্যয় হয়েছে। আমাদের এখনো টুর্নামেন্টে ফেরার সুযোগ আছে। একটা ভালো দিনে আফগানদের সাথে ম্যাচে যদি আমরা জিততে পারি, তাহলে ৫০ : ৫০ চান্স থাকবে, এরপর পাকিস্তানের সাথে ম্যাচে।’ এ দিকে সুপার ফোরের অন্য ম্যাচে আজ মুখোমুখি হবে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত ও পাকিস্তান।