১৪, ডিসেম্বর, ২০১৮, শুক্রবার | | ৫ রবিউস সানি ১৪৪০

পুলিশি হেফাজতে শ্রীলঙ্কার সেনাপ্রধান

আপডেট: নভেম্বর ২৯, ২০১৮

পুলিশি হেফাজতে শ্রীলঙ্কার সেনাপ্রধান

শ্রীলঙ্কার সেনাপ্রধান অ্যাডমিরাল রবীন্দ্র উইজেগুনারাত্নেকে পাঁচ দিন পুলিশি হেফাজতে রেখে জিজ্ঞাসাবাদের আদেশ দিয়েছেন কলম্বোর একটি আদালত।

দেশটির গৃহযুদ্ধের সময় হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে দায়ের একটি মামলায় হাজিরা দিতে গেলে বুধবার কলম্বো ম্যাজিস্ট্রেট আদালত তার জামিন আবেদন খারিজ করে দিয়ে এই আদেশ দেন। খবর বিবিসির।

এর আগে নভেম্বর শুরুর দিকে তার বিরুদ্ধে তিনটি গ্রেফতারি ওয়ারেন্ট জারি করেন এই আদালত।

উল্লেখ্য, শ্রীলঙ্কায় ২৬ বছর ধরে চলা গৃহযুদ্ধের সময় ১১ তরুণকে অপহরণ ও খুনের ঘটনার সাথে উইজগুনরত্নের সম্পৃক্ততা পাওয়া গেছে। আর এ কারণেই তাকে পুলিশ হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

শ্রীলঙ্কার এই সেনাপ্রধান আগামী ৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত আটক থাকবেন। এই সময়ের মধ্যে তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সম্পর্কে আরও তদন্ত করা হবে।

এদিকে তার জামিন আবেদন নাকচ করা বিষয়ে দেশটির ম্যাজিস্ট্রেট রাঙ্গা দিশানায়েকে বলেন, উইজগুনরত্নে তদন্তে বিঘ্ন ঘটাতে পারেন। এ কারণে তদন্ত শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত পুলিশ হেফাজতে থাকতে হবে তাকে।

২০০৮ সালে গৃহযুদ্ধ চলার সময় শ্রীলঙ্কায় অনেক অপহরণের ঘটনা ঘটে। তখন ১১ তরুণ অপহরণ হওয়ার বিষয়টি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করেছিল আন্তর্জাতিক কয়েকটি মানবাধিকার সংগঠন।

অতীতে শ্রীলঙ্কায় মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিষয়গুলো নিয়ে সম্প্রতি তদন্ত শুরু হয়েছে। এ কারণেই ২০০৮ সালের অপহরণের ঘটনাটি নতুন করে সামনে এলো।