১৪, ডিসেম্বর, ২০১৮, শুক্রবার | | ৫ রবিউস সানি ১৪৪০

শীর্ষ ৫ নেতা‌কে ম‌নোনয়ন না দেয়ার ব্যাখ্যা দি‌লেন কা‌দের

আপডেট: নভেম্বর ২৮, ২০১৮

শীর্ষ ৫ নেতা‌কে ম‌নোনয়ন না দেয়ার ব্যাখ্যা দি‌লেন কা‌দের

জাহাঙ্গীর ক‌বির নানক, অাবদুর রহমান, অা ফ ম বাহাউ‌দ্দিন না‌ছিম, বিএম মোজা‌ম্মেল হক ও আহমদ হোসেন- দ‌লের শীর্ষ এই পাঁচ নেতা‌কে ম‌নোনয়ন না দেয়ার কারণ ব্যাখ্যা কর‌লেন অাওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক, সড়ক প‌রিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কা‌দের।

বুধবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের পক্ষ থেকে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে পাঁচ নেতাকে মনোনয়ন না দেয়ার কারণ ব্যাখ্যা করেন ওবায়দুল কাদের।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক আব্দুস সবুর, শিক্ষা ও মানবসম্পদ সম্পাদক সামসুন্নাহার চাঁপা, উপ-দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, কেন্দ্রীয় সদস্য এস এম কামাল হোসেন, আনোয়ার হোসেন ও মারুফা আক্তার পপি প্রমুখ।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমাদের শীর্ষ নেতাদের নির্বাচনের বাইরের রাখার বিষয়টি ক্লিয়ার হওয়া উচিত। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন পরিচালনার জন্য আওয়ামী লীগের পাঁচ শীর্ষ নেতাকে মনোনয়ন দেয়া হয়নি। আমাদের নির্বাচন পরিচালনার জন্য দক্ষ এবং অভিজ্ঞ যে নেতৃত্ব, তারা সাধারণত নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতো। কিন্তু, এবার আমাদের নেত্রী সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ভারতের বিজেপিসহ অনেক রাজনৈতিক দলের মতো এই শীর্ষ নেতাদের নির্বাচনের বাইরে রেখেছেন।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমাদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান, জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক বাহাউদ্দিন নাছিম, আহমদ হোসেন, বিএম মোজাম্মেল হক নির্বাচন পরিচালনার সঙ্গে থাকবেন। এ ব্যাপারে মঙ্গলবার তাদের সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী ডেকে কিছু পরামর্শ দিয়েছেন, আরও দেবেন। গণতান্ত্রিক রাজনীতিতে সবাই নির্বাচন করে না। ভারতের অনেকেই কিন্তু দলকে সহযোগিতা করার জন্য নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন না।’

বিএনপি জঙ্গিকে মনোনয়ন দেবে, এতে অবাক হওয়ার কিছু নেই বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। জঙ্গিদের পেছনে অর্থ ঢালার অভিযোগে বিচারের মুখে থাকা ব্যারিস্টার সাকিলা ফারজানাকে বিএনপি থেকে মনোনয়ন দেয়ার বিষয়ে বলতে গিয়ে তিনি এ মন্তব্য করেছেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সাকিলা ফারজানা জঙ্গি বলেই মনোনয়ন পেয়েছেন। জঙ্গি তৎপরতার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের অনেকেই তাদের মনোনয়ন পেয়েছেন। এখনও তারা ঘোষণা করেননি, তবে এটাই স্বাভাবিক ব্যাপার যে; এরা মনোনয়ন পাবেন। বিএনপি জঙ্গিবাদের পৃষ্ঠপোষক, এটা আমরা অনেক দিন আগে থেকে বলে আসছি। এই পৃষ্ঠপোষকতার পরে তারা জঙ্গিকে মনোনয়ন দেবে, এতে অবাক হওয়ার কিছু নেই।’

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, ‘আমাদের যারা মাঠে আছেন, প্রার্থিতা জমা দিয়েছেন, প্রত্যাহারের আগেই যাদের মনোনয়ন দেবো; তারা ছাড়া অন্যদের প্রত্যাহার পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। আমরা তাদের বোঝাবো, কনভিন্স করার চেষ্টা করবো। তারা অবশ্যই ত্যাগস্বীকার করবেন। এরপরও প্রত্যাহার পর্ব শেষ হয়ে যাওয়ার পর আমাদের কঠোর অবস্থানে যেতে হবে। কেউ বিদ্রোহ করলে বহিষ্কার হবে, এটা আমরা আগেও বলেছি।’

জামায়াত এখন ঐক্যফ্রন্টের অংশ দাবি করে কাদের বলেন, ‘কাজেই জামায়াত কাকে মনোনয়ন দিল, ঐক্যফ্রন্ট কাদের দিল, এটা তাদের আদর্শের বিষয়। আমাদের দল থেকে আমরা এ রকম কোনো মনোনয়ন দেইনি। আমাদের মনোনয়ন ২৩১টি দিয়েছি। এরমধ্যে ৪৫ জন নতুন মুখ আছে। কিছু তরুণকেও এবার মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। এখন মনোনয়ন প্রত্যাহার পর্যন্ত সমীকরণ কোথায় গিয়ে ঠেকে অপেক্ষা করতে হবে।’

এফএইচএস/বিএ