আজ মঙ্গলবার ভোর ৫:৫৯, ১৭ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং, ২রা কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৫শে মুহাররম, ১৪৩৯ হিজরী

কফির চেয়ে চা ভালো?

নিউজ ডেস্ক | বার্তা বাজার .কম
আপডেট : মার্চ ৯, ২০১৭ , ৮:০৯ পূর্বাহ্ণ
ক্যাটাগরি : জীবনযাত্রা,সিলেট
পোস্টটি শেয়ার করুন

অনেকেরই পছন্দ পড়ন্ত বিকেলে কফির মগে চুমুক দিতে দিতে সূর্যাস্ত দেখা। আবার কেউ কেউ কাজের চাপ কমাতে আশ্রয় নেন এই কফির। অনেকের আবার কিছুক্ষণ পর পর চা না হলেই নয়। চা এবং কফি দুটোই আমাদের তাৎক্ষনিক চাঙ্গা হতে সাহায্য করে, তবে এর মাঝে কোনটি ভালো? এক্ষেত্রে চা এর উপকারিতা বেশি বলে জানা গিয়েছে। গ্রিন-টি, আদা চা আমাদের এক দিকে যেমন চাঙ্গা রাখে তেমনই এর উপাদানগুলো আমাদের শরীরের জন্য ভালো।

নিজেকে শান্ত রাখতে : কফি আপনাকে সারাদিনের ক্লান্তিভাব দূর করাতে সাহায্য করে খুব জোড়ালোভাবে। তবে এর আছে কিছু বাজে দিক। এটি আপনার শরীর আর মনকে সমান ভাবে উত্তেজিত করে রাখে। ফলে ঘুম না আসা, অস্বস্তি ভাব লাগা শুরু হয়। অন্যদিকে এককাপ গ্রিন টি আপনাকে নানা ভাবে সাহায্য করে। এটি আপনাকে তাতক্ষনিক নয়। পুরো দিনের জন্য চাঙ্গা রাখে।

ওজন কমাতে : চা আপনার শরীরের ফ্যাট কোষগুলোকে আকারে ছোট করে দেয় আর পেশী মজবুত করাকেও তরান্বিত করে। আর সেটা যদি হয় গ্রিন টি তাহলে তো আর কথাই নেই।

সঠিক মাত্রায় ঘুমাতে : কফি সাধারণত ক্লান্তি দূর করার জন্যে দিনের শেষে পান করে থাকে মানুষ। আর তাই এর ভেতরে থাকা ক্যাফেইন কাজও করে অনেকটা সময় ধরে। রাতে ঘুমাতেও বেশ সমস্যা সৃষ্টি করে এই উত্তেজক পানীয়। অন্যদিকে গ্রিন টিতে এমন কোনো সমস্যাই নেই।

হজমশক্তি বাড়াতে : কফি শরীরে অ্যাসিড তৈরি করে। হজমশক্তিকে কমিয়ে দেয়। আর অন্যদিকে চায়ের এমন কোনো সমস্যা নেই। উল্টো এরকম কোনো সমস্যায় আদা চা কিংবা পেপারমিন্ট চা উপকারে আসতে পারে আপনার ।

দাঁতকে সুস্থ রাখতে : চা দাঁতের সুস্থতার জন্যে বেশ উপকারী। পরীক্ষায় দেখা গিয়েছে চা মানুষের দাঁতের জমে থাকা ময়লাকে দূর করতে সাহায্য করে। আর তাই প্রতিদিন খাবারের তালিকায় ঔষধ হিসেবে খানিকটা চা পান করা আপনার দাঁতকে করে তুলতে পারে যথেষ্ট সুস্বাস্থ্যের অধিকারী। তবে এক্ষেত্রে খেয়াল রাখতে হবে যেন সেটি চিনি ছাড়া হয়।