সিরাজদিখানে জমে উঠেছে কোরবানীর পশুর হাট

আর মাত্র একদিন পর পবিত্র ঈদ উল আযহা। আর এ উপলক্ষ্যে জমে উঠেছে মুন্সীগঞ্জ জেলার সিরাজদিখান উপজেলার পশুর হাটগুলো। ক্রেতা আর বিক্রেতাদের উপচে পড়া ভীরের মধ্যে কোরবানীর পশু ক্রয় করছেন ক্রেতারা। যে যার সাধ্য মত কোরবানীর পশু তথা গরু, ছাগল ও মহিষ ক্রয় করছেন।

উপজেলার বিভিন্ন হাট ঘুরে ও ক্রেতা বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, উপজেলার সবকটি হাটে দেশি গরুর যোগান সবচেয়ে বেশি। এমনকি হাটগুলোতে পর্যাপ্ত পরিমানে ছাগল রয়েছে। উপজেলার ইছাপুরা পশুর হাটে গিয়ে ক্রেতা-বিক্রেতাদের সঙ্গে আলাপ করে জানা যায়, ক্রেতাদের পছন্দের তালিকায় বড় গরুর চাইতে মাঝারি ও ছোট গরুর চাহিদা বেশি। আবার কেউ কেউ বড় এবং মোটা জাতের গরু বেছে নিচ্ছেন্ন কোরবানীর জন্য।

কোরবানির জন্য মানুষ ৫০ থেকে ৮০ হাজার টাকার মধ্যে গরু কিনতে পছন্দ করছেন। হাট কর্তৃপক্ষ জানান, গরুর হাটের বেচাকেনা অবিরামভাবে চলবে চাঁদ রাত পর্যন্ত চলবে। সিরাজদিখান থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ফরিদ উদ্দিন বলেন, উপজেলার সবকটি পশুর হাটেই আইনশৃঙ্খলা রক্ষার্থে পুলিশ নিয়োজিত আছে এবং তারা হাটের আশা যাওয়ার মাধ্যমে ক্রেতা এবং বিক্রেতাদের নিরাপত্তা দিচ্ছে। আশা রাখছি আইনশৃঙ্খলার কোন অবনতি হবেন। মানুষ নিশ্চিন্তায় কোরবানীর পশু ক্রয় বিক্রয় করতে পারবেন।

বার্তা বাজার/কেএ

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর