আজ শুক্রবার রাত ৩:৫২, ২৪শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং, ১০ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা রবিউল-আউয়াল, ১৪৩৯ হিজরী

বিশ্বকাপের আগে আরো যাদের মুখোমুখি হচ্ছেন নেইমাররা

নিউজ ডেস্ক | বার্তা বাজার .কম
আপডেট : অক্টোবর ১৯, ২০১৭ , ১০:৪৭ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : খেলাধুলা,ফুটবল
পোস্টটি শেয়ার করুন

আর ২৩৬ দিন পর পর্দা উঠবে ফুটবলের সবথেকে বড় মঞ্চ ফিফা বিশ্বকাপ ২০১৮। রাশিয়াতে বসতে যাওয়া এবারের আসরের প্রথম ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে ১৪ জুন। আর আসন্ন এ বিশ্ব আসরে সবার আগে টিকিট নিশ্চিত করেছে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল।

ল্যাটিন আমেরিকা অঞ্চলের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে সর্বোচ্চ পয়েন্ট ও গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ পায় তিতের শিষ্যরা।

বিশ্বকাপের মূল পর্বে নামার আগে নিজেদের ঝালিয়ে নেওয়ার কথা ভাবছে ব্রাজিল। তার অংশ হিসাবে বিশ্বকাপের আগে প্রস্তুতিতে কোনো রকম ঘাটতি রাখতে চাইছে না দলটি। আগামী বছরের মার্চে রাশিয়ার বিপক্ষে আন্তর্জাতিক প্রীতিম্যাচ খেলবে পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। মার্চের ২৩ তারিখে ২০১৮ বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ রাশিয়ার বিপক্ষে খেলবেন নেইমাররা।

রাশিয়া ম্যাচের পরপরই ডিফেন্ডিং বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানির বিপক্ষে আন্তর্জাতিক প্রীতিম্যাচে মুখোমুখি হবে ব্রাজিল। মার্চের ২৭ তারিখে বার্লিনে জার্মানদের আতিথ্য গ্রহণ করবে সেলেসাওরা।

সোভিয়েত ইউনিয়ন ভেঙে যাওয়ার পর ১৯৯৪ সালে প্রথমবারের মতো মুখোমুখি হয় ব্রাজিল ও রাশিয়া। ক্যালিফোর্নিয়ায় সেই ম্যাচটিতে রাশিয়াকে ২-০ গোলে পরাজিত করে সাম্বার দেশ।

এরপর আরো চারবার মুখোমুখি হয় ব্রাজিল ও রাশিয়া। সর্বশেষ ২০১৩ সালে লন্ডনে মুখোমুখি হল দল দুটি। ম্যাচটি ১-১ গোলের ড্রয়ে শেষ হয়।

তবে তার আগে আগামী মাসে ফ্রান্সের মাটিতে জাপানের বিপক্ষে একটি আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচ খেলবে ব্রাজিল। এরপর ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে খেলতে লন্ডন সফরে যাবেন নেইমার-কৌটিনহোরা।

রাশিয়ার সঙ্গে প্রীতি ম্যাচ খেলার জন্য ব্রাজিল আগামী মার্চে মস্কো সফর করবে ব্রাজিলের জাতীয় ফুটবল দল। ব্রাজিলীয় ফুটবল ফেডারেশন (সিবিএফ) মঙ্গলবার এই ঘোষণা দিয়েছে।

সিবিএফের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ব্রাজিল জাতীয় দলের সমন্বায়ক এডু গ্যাসপার বলেন, ‘রাশিয়ার আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়ে নেয়ার জন্য এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। চূড়ান্ত স্কোয়াড ঘোষণার আগে খেলোয়াড়, সমর্থক, স্টেডিয়াম এবং সর্বোপরি সেখানকার পরিবেশ সম্পর্কে ধারণা পাবার জন্য এটি গুরুত্বপূর্ণ বলে আমরা মনে করি। আয়োজক দেশের মাটিতে খেলোয়াড়রা কেমন করতে পারে সেটি পরখ করার জন্য এটি হবে খুবই আকর্ষণীয় ব্যাপার।’

আগামী ২৩ মার্চ ম্যাচ আয়োজনের চূড়ান্ত তারিখ নির্ধারণ করা হলেও এর ভেন্যু এখনো নিশ্চিত করা হয়নি।

দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের শীর্ষ দল হিসেবে বিশ্বকাপ নিশ্চিত করায় ব্রাজিল পরিণত হয়েছে ম্যাচের ফিক্সার প্রণয়নের ক্ষেত্রে শীর্ষ বাছাই দলের একটি। আগামী ১ ডিসেম্বর মস্কোতে অনুষ্ঠিত হবে গ্রুপ প্রণয়নের ড্র অনুষ্ঠান।