কাঠগড়ায় ইনজামাম

নিজে প্রধান নির্বাচক। তাই ভাতিজা ইমাম-উল-হককে যখন জাতীয় দলে নিয়েছিলেন, তখন কেউ কেউ উশখুশ করেছিলেন। ভাতিজা সুযোগ পাওয়ায় সমালোচনার মুখেই পড়েছিলেন ইনজামাম-উল-হক। পারফরম্যান্স নয়, প্রভাবশালীর আত্মীয় হওয়াতেই সুযোগ পেয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছিল।

ভাতিজা অবশ্য মুখরক্ষা করেছেন চাচার। ইতিহাসের তৃতীয় অল্প বয়সী ক্রিকেটার হিসেবে অভিষেক ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ইমাম দেখিয়ে দিলেছিলেন চাচা ইনজামাম এতটুকু ভুল করেননি।

ভাতিজা সাফল্য পেলেও এবার ছেলের সুযোগ পাওয়া নিয়ে কাঠগড়ায় পাকিস্তানের প্রধান নির্বাচক ও সাবেক ব্যাটিং কাণ্ডারি ইনজামাম। মুলতানের সুলতানের বিরুদ্ধে অভিযোগের আঙুলটা তুলেছেন নিজ দেশের সাবেক স্পিনগ্রেট আবদুল কাদির।

তবে সমালোচনার মুখে ইনজি পাশে পাচ্ছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চেয়ারম্যান এহসান মানিকে। সাবেক তারকার উপর পূর্ণ আস্থা রয়েছে বলেই জানিয়েছেন পিসিবি বস।

ইনজামামকে সমর্থন করেছেন তার সাবেক সতীর্থ মোহাম্মদ ইউসুফও।

বৃহস্পতিবার মানির সঙ্গে দেখা করেছেন ইনজামাম এবং জুনিয়র দলের নির্বাচক বাসিত আলী। বলেছেন, পাকিস্তান যুব দলেই সুযোগ পেয়েছেন ইনজির ছেলে।

যদিও কাদিরের অভিযোগ, ইনজামামের সমর্থনেই জাতীয় যুব দলে সুযোগ পেয়েছেন তার ছেলে। কাদিরের দাবি, বাসিত তাকে বলেছেন, ছেলে ইবতিসাম-উল-হককে দলে নিতে ইনজামামই বাসিতকে বলেছেন। যদিও কাদিরের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ইনজি-বাসিত উভয়েই।

বৃহস্পতিবার ইনজি-বাসিতের সঙ্গে বৈঠকের পর এক প্রেস বিবৃতিতে দুই নির্বাচনের উপর আস্থা রয়েছে জানিয়ে পিসিবি মুখপাত্র বলেছেন, ‘দুই নির্বাচকের বিরুদ্ধে জল্পনা ছড়ানোয় হতাশ মানি। তবে দুই নির্বাচকের ওপর পূর্ণ আস্থা রয়েছে তারা।’

মানির সঙ্গে সাক্ষাতের আগে এক ভিডিও বিবৃতিতে ইনজামাম পিসিবি’র উদ্দেশ্য করে বলেন, চেয়ারম্যান এহসান মানি এই ব্যাপারটি তদন্ত করে অপরাধ পেলে ব্যবস্থা নিন।

বুধবার এক টুইট বার্তায় তিনি বলেন, ‘আমি এই মিথ্যা এবং বিদ্বেষপরায়ণ দাবি দৃঢ়ভাবে প্রত্যাখ্যান করছি। রেকর্ড অনুযায়ী এই বিষয় নিয়ে জুনিয়র নির্বাচন কমিটির কাছে কেউই যায়নি এবং এর মধ্যে কোনো সত্যতা নেই। আমি বিষয়টি খুবই গুরুত্ব সহকারে নিয়েছি এবং আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) এ বিষয়ে একটি খোলা তদন্তের জন্য পিসিবি সভাপতিকে অনুরোধ করছি।’

ইনজির মতো একই রকম বার্তা দেন বাসিতও। বলেন, ‘যারা এই ধরনের মিথ্যা খবর ছড়ায় তাদের শাস্তি দিতে আমি পিসিবি চেয়ারম্যানকে বিষয়টি তদন্ত করতে বলছি।

বিষয়টি তদন্তের আহবান জানিয়েছেন মোহাম্মদ ইউসুফও। বলেছেন, ‘তদন্তই ইনজামামের বিবৃতির ব্যাপারটা প্রমাণ করবে।’

You might also like