আজ বৃহস্পতিবার বিকাল ৪:৪৬, ১৯শে অক্টোবর, ২০১৭ ইং, ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৮শে মুহাররম, ১৪৩৯ হিজরী

৩৯জন মহিলা ধর্ষণকারীকে বলিউডি কায়দায় গ্রেফতার

নিউজ ডেস্ক | বার্তা বাজার .কম
আপডেট : অক্টোবর ১৪, ২০১৭ , ১২:১৯ পূর্বাহ্ণ
ক্যাটাগরি : আন্তর্জাতিক,বিচিত্র সংবাদ
পোস্টটি শেয়ার করুন

রামরহিমের পর এবার উঠে এল আরও এক নাম৷ নাম তার মৌলানা করিম৷ ৩২বছর ধরে পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে অবৈধ কাজকর্ম করে যাচ্ছিল এই ব্যক্তি৷ মৌলানা করিমকে ধরতে পুরস্কারও ঘোষণা করেছিল পুলিশ৷ জানা গিয়েছে, অভুক্ত এই ব্যক্তির আসল নাম আফতাব ওরফে নাটে৷ কিন্তু সে মৌলানা করিম নাম নিয়ে সকলের চোখে ধুলো দিয়ে নিজের কারবার চালিয়ে যাচ্ছিল৷ আর এই কারবার সম্পর্কে জানলে চমকে যাবেন আপনিও!

সূত্রের খবর, ৩৯ জন মহিলাকে ধর্ষণ করেছিল মৌলানা করিম৷ তিন তালাকে নির্যাতিত মুসলিম মহিলাদের হালালার নামে যৌন শোষণের কাজ করত করিম৷ এনকাউন্টার স্পেশালিস্ট অনিরুদ্ধ সিং (তামিল ছবিতে অভিনয় করেছিলেন), এডিজি এলাহাবাদ এসবি সাওয়ন্তের নেতৃত্বে মৌলানা করিমকে বলিউডি কায়দায় গ্রেফতার করেন৷

১৯৮৫ সাল থেকে খোঁজ চলছিল অভিযুক্তের৷ জানা যায়, মন্দির, মসজিদ, দরগাকেই সে নিরাপদ আশ্রয়স্থল হিসেবে বেছে নিয়েছিল৷ দরগাতে আগত প্রত্যেককে সে নিজের পরিচয় একজন তান্ত্রিক বলে জানাত৷ ভূত-প্রেত-সমস্যা দূর করার নামে তাদের থেকে টাকাও লুঠত৷ এসপি সিটি জানান, এই মৌলানা করিম নিজেকে হালালা-নিকাহ এক্সপার্ট বলে দাবি করত৷

জানা যায়, পুলিশের হাত থেকে বাঁচতে প্রতি ১৫দিন অন্তর নিজের সিম কার্ড বদলে দিত সে এবং গোপনে-সতর্কতা অবলম্বন করে যোগাযোগ করত নিজের পরিবারের সঙ্গে৷ তবে পরিবারে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ চালালে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, অভিযুক্তের সঙ্গে কোনও সম্পর্ক নেই তাদের৷ তবে পরিবারের ওপর নজরদারি চালানোর ফলেই শেষে মৌলানা করিমের হদিশ পাওয়া যায়৷ পুলিশের হাতে ধরা পড়ার পর সে জানায়, এলাহাবাদের শাহগঞ্জ থানা এলাকাতেই থাকত সে৷ -কলকাতা২৪